পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৮৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


r রবীন্দ্র-রচনাবলী טאפא מ পুরোহিত। দেখো বাবা, ভালো করে ভেবে দেখো, সমস্ত সংসার যারা চালায় মহাকালের রথের রশির জিন্মে তাদেরই পরে। দলপতি। ঠাকুর, সংসার কি তোমরাই চালাও । পুরোহিত। তা দেখো, কাল খারাপ বটে, তবু হাজার হোক আমরা তো ব্রাহ্মণ বটে। দলপতি । মন্ত্রীমশায়, সংসার কি তোমরাই চালাও । মন্ত্রী। সংসার বলতে তো তোমরাই। নিজগুণে চল, আমরা চালাক লোকেরা বলে থাকি আমরাই চালাচ্ছি। তোমাদের বাদ দিলে আমরা কজনই বা আছি । দলপতি। আমাদের বাদ দিলে তোমরা যে কজনাই থাকো-না, থাকবে কী উপায়ে ? মন্ত্রী। হা, স্থা, সে তো ঠিক কথা । g দলপতি। আমরাই তো জোগাচ্ছি অন্ন, তাই খেয়ে তোমরা বেঁচে আছ । আমরাই বুনছি বস্ত্র, তাতেই তোমাদের লজ্জারক্ষা । সৈনিক । সর্বনাশ! এতদিন এরা আমাদেরই কাছে হাত জোড় করে বলে আসছিল তোমরাই আমাদের অন্নবস্ত্রের মালিক’ । আজ এ কী রকমের সব উলটো বুলি। আর তো সহ হয় না। মন্ত্রী । ( সৈনিকের প্রতি ) চুপ করে। ( দলপতিকে ) সর্দার, আমরা তো তোমাদের জন্তেই অপেক্ষা করছিলুম। মহাকালের বাহন তোমরাই, সে কথা আমরা বুঝি নে, আমরা কি এত মূঢ়। তোমাদের কাজটা তোমরা সাধন করে দিয়ে যাও, তার পরে আমাদের কাজ করবার অবসর আমরা পাব । দলপতি । আয় রে ভাই, সবাই মিলে টান দে । মরি আর বঁচি আজি মহাকালের রথ নড়াবই । মন্ত্রী। কিন্তু সাবধানে রাস্তা বাচিয়ে চোলো। যে রাস্তায় বরাবর রথ চলেছে সেই রাস্তায় । আমাদের ঘাড়ের উপর এসে না পড়ে যেন । দলপতি। রথের পরে রথী আছেন, রাস্ত তিনিই ঠাউরে নেবেন, আমরা তো বাহন, আমরা কী বা বুঝি। আয় রে সবাই। ওই দেখছিস রথের চূড়ায় কেতনটা দুলে উঠেছে, স্বয়ং বাবার ইশারা । ভয় নেই, অtয় সবাই । পুরোহিত । ছুলে রে ছুলে ! রশি ছুলে ! ছি, ছি! নাগরিকগণ । হায়, হায়, কী সর্বনাশ !