পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১০০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী নিশীথে তারায় আলোর ধেয়ান জাগে, উদয়স্থর্য গাহে জাগরণী গান। নীরবে গোপনে মর্ত্যভুবন-’পরে অমরাবতীর স্বরস্বরধুনী ঝরে। যখনি হৃদয়ে পশিল তাহার ধারা নিজেরে জানিলে সীমার বাধন হীরা, স্বর্গের দীপ জলিল মাটির ঘরে । আজি বসন্ত চিরবসন্ত হ’ক চিরস্থন্দরে মজুক তোমার চোখ । প্রেমের শান্তি চিরশাস্তির বাণী জীবনের ব্রতে দিনে রাতে দিক আ সংসারে তব নামুক অমৃতলোক । নি, আশ্বিন ? ১৩৩৫ মিলন স্বষ্টির প্রাঙ্গণে দেখি বসন্তে অরণ্যে ফুলে ফুলে দুটিরে মিলানো নিয়ে খেলা রেণুলিপি বহি বায়ু প্রশ্ন করে মুকুলে মুকুলে কবে হবে ফুটিবার বেলা । তাই নিয়ে বর্ণচ্ছটা, চঞ্চলত শাখায় শাখায়, সুন্দরের ছন্দ বহে প্রজাপতি পাথায় পাথায়, পাখির সংগীত সাথে বন হতে বনাস্তরে ধায় উচ্ছ্বসিত উৎসবের মেলা ।