পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ᎼᏬᏬ রবীন্দ্র-রচনাবলী জন্মদিন রবিপ্রদক্ষিণপথে জন্মদিবসের আবর্তন হয়ে আসে সমাপন । আমার রুদ্রের মালা রুদ্রাক্ষের অস্তিম গ্রন্থিতে এসে ঠেকে রৌদ্রদগ্ধ দিনগুলি গেঁথে একে একে। হে তপস্বী, প্রসারিত করো তব পাণি লহে মালাখানি । উগ্ৰ তব তপের আসন, সেথায় তোমারে সম্ভাষণ করেছিমু দিনে দিনে কঠিন স্তবনে কখনো মধ্যাহ্নরৌদ্রে কখনো-বা ঝঙ্কার পবনে । এবার তপস্যা হতে নেমে এসে তুমি— দেখা দাও যেথা তব বনভূমি ছায়াঘন, যেথা তব আকাশ অরুণ আষাঢ়ের আভাসে করুণ । অপরাহ্ যেথা তার ক্লান্ত অবকাশে মেলে শূন্ত আকাশে আকাশে বিচিত্র বর্ণের মায়া ; যেথা সন্ধ্যাতারা বাক্যহার বাণীবহি জালি’ নিভৃতে সাজায় বসে অনন্তের আরতির ডালি । শু্যামল দাক্ষিণ্যে ভরা সহজ আতিথ্যে বসুন্ধরা যেথা স্নিগ্ধ শাস্তিময় ; যেথা তার অফুরান মাধুর্যসঞ্চয় প্রাণে প্রাণে বিচিত্র বিলাস আনে রূপে রসে গানে