পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পরিশেষ নির্বাকৃ মনে তো ছিল তোমারে বলি কিছু যে-কথা আমি বলি নি আর-কারে, সেদিন বনে মাধবীশাখা নিচু ফুলের ভারে ভারে । বঁাশিতে লই মনের কথা তুলি বিরহব্যথাবৃন্ত হতে ভাঙা,— গোপন রাতে উঠেছে তারা দুলি স্বরের রঙে রাঙা । শিরীষবন নতুনপাতা-ছাওয়া মর্মরিয়া কহিল, ‘গাহে গাহে।’ মধুমালতীগন্ধে-ভরা হাওয়া দিয়েছে উৎসাহ । পুর্ণিমাতে জোয়ারে উছলিয়া নদীর জল ছলছলিয়া উঠে । কামিনী ঝরে বাতাসে বিচলিয়া ঘাসের পরে লুটে । সে মধুরাতে আকাশে ধরাতলে কোথাও কিছু ছিল না কৃপণতা । চাদের আলো সবার হয়ে বলে যত মনের কথা । মনে হল যে, নীরবে কৃপা যাচে যা-কিছু আছে তোমার চারিদিকে । সাহস ধরি গেলেম তব কাছে চাহিমু অনিমিখে। ২১৭