পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/২৩০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SS ఆ রবীন্দ্র-রচনাবলী শিখরে শিখরে কেতন তোমার রেখে যাবে নব নব, দুর্গম-মাঝে পথ করি দিবে,— জীবনের ব্রত তব । যত আগে যাবে দ্বিধা সন্দেহ ঘুচে যাবে পাছে পাছে, পায়ে পায়ে তব ধ্বনিয়া উঠিবে মহাবাণী— ‘অাছে আছে? vواى د gق٤6 ه ډ প্রতীক্ষা তোমার স্বপ্নের দ্বারে আমি আছি বসে তোমার সুপ্তির প্রাস্তে, নিভৃত প্রদোষে প্রথম প্রভাততারা যবে বাতায়নে দেখা দিল । চেয়ে অামি থাকি একমনে তোমার মুখের পরে। স্তম্ভিত সমীরে রাত্রির প্রহরশেষে সমুদ্রের তীরে সন্ন্যাসী যেমন থাকে ধ্যানাবিষ্ট চোখে চেয়ে পুর্বতট-পানে, প্রথম আলোকে স্পর্শস্নান হবে তার, এই আশা ধরি অনিদ্র আনন্দে কাটে দীর্ঘ বিভাবরী । তব নবজাগরণী প্রথম যে-হাসি কনকচাঁপার মতে উঠিবে বিকাশি আধোখোলা অধরেতে, নয়নের কোণে, চয়ন করিব তাই, এই আছে মনে । २० कॉखुन २७७v