পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (পঞ্চদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8や রবীন্দ্র-রচনাবলী অরণ্যের শাখায় শাখায় প্রজাপতিসংঘ আনে পাখায় পাখায় চিত্রলিপি, কুসুমেরি বিচিত্র অক্ষরে ; ধরণী যৌবনগর্বভরে আকাশেরে নিমন্ত্রণ করে ষবে উদাম উৎসবে 5 কবির বীণার তন্ত্র যে-বসন্তে ছিড়ে যেতে চাহে প্রমত্ত উৎসাহে । আকাশে বাতাসে বর্ণের গন্ধের উচ্চহাসে ধৈর্য নাহি রহে,— নহে নহে, সেদিন তো নহে । যেদিন আশ্বিনে শুভক্ষণে আকাশের সমারোহ ধরণীতে পুর্ণ হয় ধনে । প্রাচুর্যপ্রশান্ত তট পেয়েছে সঙ্গিনী তরঙ্গিণী— তপস্বিনী সে-যে, তার গম্ভীর প্রবাহে— সমুদ্রবন্দনা গান গাহে । মুছিয়াছে নীলাম্বর বাস্পসিক্ত চোখ, বন্ধমুক্ত নির্মল আলোক । বনলক্ষ্মী শুভব্ৰতা শুভ্রের ধেয়ানে তার মেলিয়াছে অমান শুভ্রতা আকাশে আকাশে শেফালি মালতী কুন্দে কাশে । অপ্ৰগলভা ধরিত্রী-সে প্রণামে লুষ্ঠিত, পুজারিনী নিরবগুষ্ঠিত, আলোকের আশীর্বাদে শিশিরের স্বানে দাহহীন শান্তি তার প্রাণে ।