পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ষোড়শ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


o i i १ * f * | | • * • ', " " ' -' * , , | | '. |

  • | !' . s r = | ! | F. ! | f
  • , of h i " بـ d _ i = 1) . . . " l

i i 1 h so Կա

| r. | n - | l ና i h h 命轨 | + l J | অক্ষয় । কী মা । জগত্তারিণী । তোমার কথা শুনে আর তো মেয়েদের রাখতে পারি নে । শৈলবালা। মেয়েদের রাখতে পার না ব’লেই কি মেয়েদের ফেলে দেবে মা । জগত্তারিণী । ওই তো । তোদের কথা শুনলে গায়ে জর আসে । বাবা অক্ষয়, শৈল বিধবা মেয়ে, ওকে এত পড়িয়ে, পাস করিয়ে, কী হবে বলে দেখি । ওর এত বিদ্যের দরকার কী । இந் অক্ষয় । মা, শাস্ত্রে লিখেছে, মেয়েমানুষের একটা না একটা কিছু উৎপাত থাকা চাই– হয় স্বামী, নয় বিদ্যে, নয় হিষ্টিরিয়া। দেখো-না, লক্ষ্মীর আছেন বিষ্ণু, তার আর বিদ্যের দরকার হয় নি, তাই স্বামীটিকে এবং পেচাটিকে নিয়েই আছেন ; আর সরস্বতীর স্বামী নেই, কাজেই তাকে বিদ্যে নিয়ে থাকতে হয় । জগত্তারিণী । তা, যা বল বাবা, আসছে বৈশাখে মেয়েদের বিয়ে দেবই । পুরবাল । ই মা, আমারও সেই মত। মেয়েমানুষের সকাল সকাল বিয়ে হওয়াই ভালো । অক্ষয় । ( জনাস্তিকে ) ত তো বটেই। বিশেষত যখন একাধিক স্বামী শাস্ত্রে নিষেধ তখন সকাল সকাল বিয়ে করে সময়ে পুষিয়ে নেওয়া চাই । পুরবালা । আঃ কী বকছ । মা শুনতে পাবেন । জগত্তারিণী। রসিককাক আজ পাত্র দেখাতে আসবেন । তা, চল মা পুরি, তাদের জলখাবার ঠিক করে রাখিগে । [ জগত্তারিণীর ও পুরবালার প্রস্থান শৈলবালা। আর তো দেরি করা যায় না মুখুজ্জেমশায়। এইবার তোমার সেই চিরকুমার-সভার বিপিনবাবু শ্ৰীশবাবুকে বিশেষ একটু তাড়া না দিলে চলছে না। আহা, ছেলে দুটি চমৎকার। আমাদের নেপো আর নীরর সঙ্গে দিব্যি মানায়। তুমি তো চৈত্রমাস যেতে না-যেতে আপিস ঘাড়ে করে সিমলে যাবে, এবারে মাকে ঠেকিয়ে রাখা শক্ত হবে । که ما অক্ষয় । কিন্তু, তাই বলে সভাটিকে হঠাৎ অসময়ে তাড়া লাগালে যে চমকে যাবে। ডিমের খোলা ভেঙে ফেললেই কিছু পাখি বেরোয় না। যথোচিত তা দিতে হবে, তাতে সময় লাগে । শৈলবালা । বেশ তো, তা দেবার ভার আমি নেব মুখুজ্জেমশায়। অক্ষয়। আর-একটু খোলসা করে বলতে হচ্ছে। o