পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫৪০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


९२8 রবীন্দ্র-রচনাবলী তখন দেবতাগণ স্ব স্ব পদ সম্বন্ধে পরিবর্তন প্রার্থনা করিলেন। বিজ্ঞ দেবতা প্রজাপতি এবং বালক দেবতা কন্দৰ্প সুরসভায় দাড়াইয়া কহিলেন, ‘সকলেই জানেন, বিবাহ-ডিপার্ট মেণ্টে বহুকাল আমাদের কিঞ্চিং কর্তৃত্ব ছিল ; সেজন্য আমাদের কোনোরূপ নিয়মিত নৈবেদ্য অথবা উপরি-পাওনা ছিল না বটে, কিন্তু কৌতুক যথেষ্ট ছিল। সম্প্রতি টাকা-নামক একটা চক্রমুখে হঠাৎ-দেবতা টঙ্কশালা হইতে নিষ্কলঙ্ক পূর্ণচন্দ্রাকারে আবির্ভূত হইয়া একপ্রকার গায়ের জোরে আমাদের সে কাজ কাড়িয়া লইয়াছে। অতএব উক্ত ডিপার্টমেন্ট হইতে আমাদের নাম কাটিয়া আজ হইতে সেই প্রবলশক্তি নূতন দেবতার নাম বাহাল হউক । সর্বসম্মতিক্রমে তাঁহাই স্থির হইল । তখন যম উঠিয়া কহিলেন, ‘এতকাল আমিই নরলোকের সর্বাপেক্ষ ভয়ের কারণ ছিলাম, কিন্তু এখন সেখানে আমা অপেক্ষা ভয় করে এমন-সকল প্রাণীর উদ্ভব হইয়াছে। অতএব, পুলিস-দারোগাকে আমার যমদণ্ড ছাড়িয়া দিয়া আমি অদ্য হইতে কাজে ইস্তফা দিতে চাই ।” অধিকাংশ দেবতার মতে যমরাজের প্রস্তাব নিতান্ত অসংগত না হইলেও ব্যাপারটা গুরুতর বিধায় আগামী নীটিঙে চূড়ান্ত নিষ্পত্তির অপেক্ষায় আপাতত স্থগিত রহিল। কার্তিকেয় উঠিয়া কহিলেন, ‘গুরুদেবের বক্তৃতার পর আমাকে আর অধিক কিছু বলিতে হইবে না। আমি দেবসেনাপতি । কিন্তু দেবগণকে রক্ষা করা আমার অসাধ্য হইয়া উঠিয়াছে, অতএব, হয় আমার পোস্ট অ্যাবলিশ করিয়া এস্টাব্লিশমেন্ট, কমানো হউক, নয় কোনো সাময়িক পত্রের সম্পাদকের উপর স্বৰ্গরক্ষাকার্যের ভার দেওয়া হউক। এমনকি, আমার বহুকালের ময়ুরটিও আমি বিনা মূল্যে র্তাহাদিগকে ছাড়িয়া দিতে প্রস্তুত আছি । ইহার পেখম ছড়াইলে তাহদের অনেকটা ৰিজ্ঞাপনের কাজ হইবে।” দেবতাদের সন্মতিক্রমে সেনাপতির পোস্ট অ্যাবলিশ হইল, এখন হইতে ময়ূরের খোরাকি তাহার নিজের তহবিল হইতে পড়িবে। - বরুণ উঠিয়া অশ্রজল বর্ষণ করিয়া কহিলেন, নিরলোকে আমার কি আর কোনো আবখ্যক আছে ? খোলার্ভাটবাহিনী বারুণী আমাকে উচ্ছেদ করিবার সংকল্প করিয়াছে। এইবেলা মানে মানে সময় থাকিতে সরিতে ইচ্ছা করি । দেবতাগণ বহুল চিন্তা ও তর্কের পর স্ট্যাটিসটিকস্ দেখিয়া অবশেষে স্থির করিলেন, এখনো সময় হয় নাই। কারণ, এখনো সময়ে সময়ে বারুণীর প্রাথর্য নিবারণের জন্য দুর্বল মানব ৰক্ষণের সহায়তা প্রার্থনা করিয়া থাকে।