পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কথা ‘জয় রান রাম সিঙের জয়’ মেত্রিপতি উর্ধ্বস্বরে কয় । কনের বক্ষ কেঁপে ওঠে ಅಡ್ಕ দুটি চক্ষু ছলো ছলো করে— বরযাত্রী ইণকে সমস্বরে, ‘জয় রানা রাম সিঙের জয় ? ‘সময় নাহি মেত্রিরাজকুমার’ মহারানার দূত উচ্চে কয় । বৃথা কেন ওঠে হুলুধ্বনি, বৃথা কেন বেজে ওঠে শাখ ! বাধা আঁচল খুলে ফেলে বর, মুখের পানে চাহে পরস্পর— কহে, ‘প্রিয়ে, নিলেম অবসর, এসেছে ওই মৃত্যুসভার ডাক । বৃথা এখন ওঠে হুলুধ্বনি, বৃথা এখন বেজে ওঠে শাখ । বরের বেশে টোপর পরি শিরে ঘোড়ায় চড়ি ছুটে রাজকুমার । মলিন মুখে নম্র নতশিরে কন্যা গেল অন্তঃপুরে ফিরে, হাজার বাতি নিবল ধীরে ধীরে রাজার সভা হল অন্ধকার । গলায় মালা, টোপর-পর শিরে । ঘোড়ায় চড়ি ছুটে রাজকুমার। মাতা কেঁদে কহেন, বিধুবেশ খুলিয়া ফেল হয় রে হতভাগী ? শাস্তমুখে কন্যা কহে মায়ে, ‘কেঁদো নামা, ধরি তোমার পায়ে,