পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (অষ্টম সম্ভার).djvu/২২৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পশুভ মশাই বৃক্ষাবন শঙ্কায় পরিপূর্ণ হইয়া প্রশ্ন করিল, মা কি এখনো গুয়ে আছেন ? ই দাদা, ভেতর থেকে বন্ধ, ডেকেও সাড়া পাচ্চিনে । বৃন্দাবন ব্যাকুল হইয়া চুটিয়া আসিয়া কপাটে পুনঃ পুনঃ করাঘাত কৰিয়া ডাকিল, ওমা-মাগো ! কেহ সাড়া দিল না । বাড়ি-শুদ্ধ সকলে মিলিয়া চেচাইতে লাগিল, তথাপি ভিতর হইতে শব্দমাত্র আসিল না। তখন লোহার সাবলের চাড় দিয়া রুদ্ধদ্বার মুক্ত করিয়া ফেলামাত্ৰই, ভিতর হইতে একটা ভয়ঙ্কর দুর্গন্ধ ; যেন মুখের উপর সজোরে ধাক্কা মারিয়া সকলকে বিমুখ করিয়া ফেলিল। সে ধাক্কা বৃন্দাবন মুহূৰ্ত্তের মধ্যে সামলাইয়া লইয়া মুখ ফিরাইয়া ভিতরে চাহিল। শয্যা শূন্ত। মা মাটিতে লুটাইতেছেন—মৃত্যু আসন্নপ্রায়। ঘরময় বিশ্বচিকার ভীষণ আক্রমণের সমস্ত চিহ্ন বিদ্যমান। যতক্ষণ র্তাহার উঠিবার শক্তি ছিল, উঠিয়া বাহিরে জাসিয়াছিলেন, অবশেষে অশক্ত, অসহায়, মেঝেয় পড়িয়া আর উঠিতে পারেন নাই। জীবনে কখনও কাহাকে বিন্দুমাত্র ক্লেশ দিতে চাহিতেন না, তাই মৃত্যুর কবলে পড়িয়াও অত রাত্রে ডাকাডাকি করিয়া কাহারও ঘুম ভাঙাইতে লজ্জাবোধ করিয়াছিলেন। সারারাত্রি ধরিয়া উহার কি ব্যাপার ঘটিয়াছে, তাহা কাহাকেও বলিবার অপেক্ষ রহিল না । মাতার এমন অকস্মাৎ, এরূপ শোচনীয় মৃত্যু চোখে দেখিয়া সহ করা মামুষের সাধ্য নহে। বৃন্দাবনও পারিল না। তথাপি নিজেকে সোজা রাখিবার জঙ্ক একবার প্রাণপণ-বলে চৌকাট চাপিয়া ধরিল, কিন্তু পরক্ষণেই সংজ্ঞা হারাইয়া জননীর পায়ের কাছে গড়াইয়া পড়িল । তাহাকে ধরাধরি করিয়া ঘরে আনা হইল ; মিনিট-কুড়ি পরে সচেতন হইয়া দেখিল, মুখের কাছে বসিয়া চরণ কাদিতেছে। বৃন্দাবন উঠিয়া বসিল, এবং ছেলের হাত ধরিয়া মৃতকল্প জননীর পদপ্রাস্তে আসিয়া নিঃশব্দে উপবেশন করিল। ষে লোকটা ডাক্তার ডাকিতে গিয়াছিল, ফিরিয়া আসিয়া বলিল, তিনি নেই। কোথায় গেছেন, এ-বেলা ফিরবেন না । মায়ের সম্পূর্ণ কণ্ঠরোধ হইয়াছিল, কিন্তু জ্ঞান ছিল, পুত্র ও পৌত্রকে কাছে পাইবা র্তাহার জ্যোতিঃহীন দুই চক্ষের প্রান্ত বাহিয়া তপ্ত আশ্র ঝরিয়া পড়িল, ওষ্ঠাধর বারংবার কাপাইয়া দাসদাসী প্রভৃতি সকলকেই আশীৰ্ব্বাদ করিলেন, তাহা কাহারও কানে গেল না বটে, কিন্তু সকলেরই হৃদয়ে পৌছিল। তখন তুলসী-মঞ্চমূলে শয্যা পাতিয়া তাহাকে শোয়ান হইল, কতক্ষণ গাছের পানে চাহিয়া রছিলেন, তার পরে মলিন-শ্রাস্ত চক্ষু দুটি সংসারের শেষ নিদ্রায় ধীরে ধীরে মুদ্রিত হইয়া গেল । অতঃপর এই ছয়টা দিন-রাত বৃন্দাবনের কাটিল শুধু এই জন্তে যে, তাহা ভগবানের ২১৭ Ե*-ՀԵ