পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (ত্রয়োদশ সম্ভার).djvu/১১৪

From উইকিসংকলন
Jump to navigation Jump to search
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ ডাক্তার মুছ হাসিয়া বলিলেন, ও কিছু না । লোকালয়ে আমার পা দুটো কেমন আপনিই খুড়িয়ে চলে। গিরিশ মহাপাত্রের চলন মনে পড়ে ? অপূৰ্ব্ব থমকাইয়া দাড়াইল কহিল, আপনাকে যেতে হবে না ডাক্তারবাৰু। ডাক্তার তেমনি মৃদু হাসিয়া বলিলেন, কিন্তু আপনার মর্য্যাদা ? অপূৰ্ব্ব বলিল, আপনার কাছে আবার মর্য্যাদা কি ? পায়ের ধূলোর যোগ্যও ত নই। আপনি ছাড়া পৃথিবীতে কি আর কারও এত বড় সাহস আছে ! এই ডাক্তার ব্যক্তিটির জীবন-ইতিহাসের সহিত অপূৰ্বর প্রত্যক্ষ পরিচয় কিছুই ছিল না। থাকিলে সে এই অত্যন্ত ক্ষুদ্র ব্যাপার লইয়। এতখানি উচ্ছ্বাস প্রকাশ করিতে লঙ্গায় মরিয়া যাইত। সমুদ্রের কাছে গোস্পদের ন্যায় এই পথটুকুতে একাকী হাট। এই লোকটির কাছে কি ! পুলিশের লোকে যাহাকে সব্যসাচী বলিয়া জানে, দশবারোজন দুৰ্ব্বত্তে মিলিয়া তাহার পথরোধ করিবে কি করিয়া ? ডাক্তার মুখ ফিরাইয়া হাসি গোপন করিয়া শেষে ভাল মানুষটির মত কহিলেন, আচ্ছ, তার চেয়ে চলুন না কেন দুইজনেই আবার একসঙ্গে ফিরে যাই ? আমাকে একলা যদি বা কেউ আক্রমণ করতে সাহস করে আপনি কাছে থাকলে ত সে সম্ভাবনা থাকবে না ! অপূৰ্ব্ব অনিশ্চিতকণ্ঠে বলিল, আবার ফিরে যাব ? ডাক্তার বলিলেন, দোষ কি ? আমার একলা যাবার বিপদের শঙ্কাও থাকবে না । থাকব কোথায় ? আমার কাছে । অফিস হইতে ফিরিয়া আজ অপুৰ্ব্বর খাওয়া হয় নাই, তাহার অত্যন্ত ক্ষুধা বোধ হইতেছিল, একটু লজ্জিত হইয়া কহিল, দেখুন, আমার কিন্তু এখনো খাওয়া হয়নি, আচ্ছা তা না হয় আজ-- ডাক্তার হাসিমুখে বলিলেন, চলুন না, ভাগ্য পরীক্ষা করে আজ দেখাই যাক। কিন্তু একটা কথা, তেওয়ারী বেচারা বড় চিন্তিত হয়ে থাকবে । তেওয়ারীর উল্লেখে অপূৰ্ব্বর মনের মধ্যে হঠাৎ একটা হিংস্র প্রতিশোধের বাসন প্রবল হইয়া উঠিল, রাগ করিয়া বলিল, মরুকগে ব্যাটা ভেবে,—চলুন যাই । এই বলিয়া সে একরম জোর করিয়াই তাহাকে বাধা দিয়া সেই আলো-আঁধারের জনশূন্ত পথে উভয়ে ইটিতে ইটিতে আবার ফিরিয়া চলিল। এবার কিন্তু ভয়ের কথা তাহার যেনে হইল না । পুলিশ থানা পার হইয়া সহসা একসময়ে সে প্রশ্ন করিয়া বসিল, আচ্ছা ডাক্তারবাবু, আপনি কি এ্যানার্কিস্ট ? - 3 e C.