পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/৩৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


बिडिब्र ब्रध्नादणौ কিছুতেই সত্য নয় । এবং ওদের শিক্ষা যদি কেউ বিষের মত পরিহারের ব্যবস্থাই দিয়ে থাকে, ত সে কেবল এইজন্তেই, বিদ্যার জন্তে নয়। আর এই যদি ঠিক হয় যে, তারা কেবল অবিদ্যাকেই মানে এবং আমরা মানি বিস্তাকে তা হলে এ দুটোর সমম্বন্ধের উপায় বইয়ের মধ্যে, প্রবন্ধের মধ্যে, শ্লোক তুলে তুলে হতেও পারে, কিন্তু একটাকে জায় একটার গিলে না খেয়ে বাস্তব জগতে যে কিভাবে সমন্বয় হতে পারে আমি জানিনে । ষাদের গেলবার মত বড় ই আছে তারা গিলবেই—মকু বা উপনিষদের দোহাই মামৰে না । অস্ততঃ এতকাল যে মানেনি সে ঠিক । পশ্চিমে এতবড় লঙ্কাকাণ্ডের পরেও ষে আজ সেই ল্যাজটার ওপরে মোড়কে মোড়কে সন্ধিপত্রের স্নেহসিক্ত কাগজ জড়ানো চলছে, এবং এত মারের পরেও ষে তার নাড়ী বেশ তাজ আছে, তাতে আশ্চর্ঘ্য হবার আছে কি ? এই মহাযুদ্ধ যারা যথাৰ্থ বাধিয়েছিল তাদের দু'পক্ষই চমৎকার মুম্ব দেহেও বহাল-তবিয়তে বেঁচে আছে । যারা মরবার তারা মরেছে ; এবং ফের যদি আবখ্যক হয়, তাদেরই আবার মরবার জন্তে জড়ো করা হবে । সুতরাং এদের মধ্যে আজ যদি কেউ শোকাকুল-চিত্তে কবিকে প্রশ্ন করে থাকে, "ভারতের বাণী কই ? তা হলে সন্দেহ হয় তারা কিঞ্চিং রসিকতা করছে ; এবং এইজন্তেই তাদের নিমন্ত্রণ করে ঘরে ডেকে এনে নিভৃতে ‘মা গৃধঃ মন্ত্র দিয়ে বশ করা যাবে,—এ ভরসা কবির থাকলেও আমার নেই । কারণ, বাঘের কানে ‘বিষ্ণু মন্ত্ৰ' ফুকলে বৈষ্ণব হয় কি না আমি ভেবে পাইনে । আরও একটা কথা । পশ্চিমের সভ্যতার একটা মন্ত মূলমন্ত্র হচ্ছে standard of living বড় করা। আমাদের দেশের মূল নীতির সঙ্গে এর পার্থক্য আলোচনা করবার স্থান আমার নেই, কিন্তু ওদের সমাজ-নীতির যেমন interpretationই দেওয়া যাক, তার আসল কথা হচ্ছে, ধনী হওয়ার । ওদের সামাজিক ব্যবস্থা, ওদের সভ্যতা, ওদের ধনবিজ্ঞান,—এর সঙ্গে যার সামান্য পরিচয়ও আছে এ সত্য সে অস্বীকার করবে না । এ ধনী হওয়ার অর্থ ত কেবল সংগ্রহ করাই নয় । সঙ্গে সঙ্গে প্রতিবেশীকেও তেমনি ধনহীন করে তোলাও এর অন্য উদেখা । নইলে, শুধু নিজে ধনী হওয়ার কোন মানেই থাকে না । সুতরাং কোন একটা সমস্ত মহাদেশ যদি কেবল ধনী হতেই চায় ত অন্যান্ত দেশগুলোকে সে ঠিক সেই পরিমাণে দরিদ্র না করেই পারে না । তবু এই একটা কথা নিত্য নিয়ত মনে রাখলে দুরূহু সমস্তার আপনি মীমাংসা হয়ে যায়। এই তার মেদ-মজ্জাগত সংস্কার, এই তার সমস্ত সভ্যতার ভিত্তি, এর পরেই তার বিরাট সৌধ অভ্ৰভেদী হয়ে উঠেছে। এরই জন্যে তার সমস্ত শিক্ষা, সমস্ত সাধনা নিয়োজিত । ve? Y. לס-אסל