পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ জীবানন্দ। তুমি আমাকে চৌধুরীমশাই বল কেন ? ষোড়শী। তবে কি বলব ? হুজুর ? জীবানন্দ । না। অনেকে যা বলে ডাকে-জীবানন্দবাৰু। ষোড়শী । বেশ ভবিষ্যতে তাই হবে । কিন্তু রাত্রি হয়ে যাচে আপনি বাড়ি গেলেন না ? আপনার লোকজন কই ? জীবানন্দ । আমি তাদের পাঠিয়ে দিয়েচি । ষোড়শী। একলা বাড়ি যেতে আপনার ভয় করবে না ? ' জীবানন্দ । না, আমার পিস্তল আছে । ষোড়শী। তবে তাই নিয়ে যান, আমার ঢের কাজ আছে । জীবানন্দ । তোমার থাকতে পারে, কিন্তু আমার নেই। আমি এখন বাব না। যোড়শী । ( প্রখর চোখে, অথচ শাস্ত-স্বরে ) আমি লোক ডেকে আপনার সঙ্গে দিচ্ছি, তারা বাড়ি পৰ্য্যন্ত পৌঁছে দিয়ে আসবে। জীবানন্দ । ( অপ্রতিভ হইয়া ) ডাকতে কাউকে হবে না, আমি আপনিই যাচ্ছি। যেতে আমার ইচ্ছে হয় না। তাই শুধু আমি বলছিলাম। তুমি কি সত্যিই চণ্ডীগড় ছেড়ে চলে যাবে অলকা ? ষোড়শী । ( ঘাড় নাড়িয়া ) ই । জীবানন্দ । কবে যাবে ? ষোড়শী । কি জানি, হয়ত কালই যেতে পারি। জীবানন্দ । কাল ? কালই যেতে পার ? ( একান্ত স্তন্ধ রহিয়া ) আশ্চৰ্য্য ! মামুষের নিজের মন বুঝতেই কি ভুল হয়! যাতে তুমি যাও সেই চেষ্টাই প্রাণপণে করেচি–অথচ, তুমি চলে যাবে শুনে চোখের সামনে সমস্ত দুনিয়াটা যেন শুকনে হয়ে গেল। তোমাকে তাড়াতে পারলে, ঐ যে জমিটা দেনার দায়ে বিক্ৰী করেচি সে নিয়ে আর গোলমাল হবে না,—কতকগুলো নগদ টাকাও হাতে এসে পড়বে, আর,—আর, তোমাকে যা হুকুম করব তাই তুমি করতে বাধ্য হবে, এই দিকটাই কেবল দেখতে পেয়েচি। কিন্তু আরও যে একটা দিক আছে, স্বেচ্ছায় তুমি সমস্ত ত্যাগ করে আমার মাথাতেই বোঝা চাপিয়ে দিলে সে ভার বইতে পারব কি না, এ-কথা আমার স্বপ্নেও মনে হয়নি। আচ্ছা অলকা, এমন ত হতে পারে আমার মত তোমারও ভুল হচ্ছে—তুমিও নিজের মনের ঠিক খবরটা পাওনি ! জবাব দাও না যে ? ষোড়শী। জবাব খুজে পাইনে। হঠাৎ বিস্ময় লাগে এ কি আপনার কথা ! জীবানন্দ । তবে এই কথাটা বল, সেখানে তোমার চলবে কি করে ? \br