পাতা:শোধবোধ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রথম অঙ্ক শোধ-বোল চতুর্থ দৃপ্ত শশধব । দেখো, এক সমযে তো ওকেই সমস্ত সম্পত্তি দেবাব কথা ছিলো । সুকুমাবী । তখন তো আমাব হবেন জন্মায় নি। তা ছাড়া তুমি কি ভাবো, তোমাব আব ছেলেপুলে হবে না ? শশধব । সুকু, ভেবে দেখো, আমাদেব অন্যায হচ্ছে। মনেষ্ট কবে। না কেন, তোমাব দুই ছে_ো । মুকুমাৰী। সে আমি অতশত বুঝিনে—তুমি যদি এমন কাজ কবো, তবে আমি গলীয় দডি দিযে ম’ববো—এক্ট আমি বলে গেলেম । সুকুমারীর প্রস্থান । সতীশেব প্রবেশ শশধব । কি সর্তাশ, থিয়েটাবে গেলে না ? সতীশ । না মেসোমশায, অব থিয়েটাব না । এষ্ট দেখ, দীর্ঘকাল পবে মিষ্টাব লাচিডিব কাছ থেকে নিমন্ত্রণ পেয়েচি ! তোমাব দানপত্রেব ফল দেখ । স”সাবের উপব আমাব ধিক্কাব জন্মে গেছে মেসোমশায় ! আমি তোমাব সে তালুক নেবো না । শশধব । কেন সতীশ ? সতীশ। নিজেব কোনো মূল্য থাকে, তবে সেই মূল্য দিয়ে যতটুকু পাওযা যায, ততটুকুই ভোগ ক’ববো । তা ছাড়া তুমি যে আমাকে তোমাৰ সম্পত্তিব অংশ দিতে চাও, মাসিমাব সম্মতি নিয়েচে তো ? শশধব । না, সে তিনি—অর্থাৎ বুঝেছে সে একবকম কবে হবে। হঠাৎ তিনি বাজি না হ’তে পাবেন, কিন্তু—যদিই বা,— সতীশ । তুমি তাকে বলেছে ?