পাতা:শ্রীনরোত্তম চরিত - শিশিরকুমার ঘোষ.pdf/৮২

উইকিসংকলন থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


اقل

  • গরাণহাট-কীৰ্ত্তনের সুঠি: "",
এইরূপে “গরাণহাট" কীৰ্ত্তনের স্মৃষ্টি হইল - পরগণা গরাণহাটিতে স্মৃষ্টি হইল, এই নিমিত্ত ইহার নাম গরাণহাট হইল।” এইরূপে বেলেট পরগণার জন্ম আচাৰ্য্য প্ৰভু যে কীিৰ্ত্তন। প্রচার করেন, তাহাকে বলে *বেলেট” । মনোহর সাহী কীৰ্ত্তন মিত্ৰ মহাশয়গণ স্বাক্ট করেন। এই গরাণহাটা পদ্ধতি স্মৃষ্টি হইলে ঠাকুর মহাশয় সেই সঙ্গে গীত রচনা করিতে লাগিলেন । এদিকে যেমন সুর স্বষ্টি হইতে লাগিল, তেমনি আবার নূতন - নূতন তালও স্বষ্টি হইতে লাগিল। কথিত আছে, দেবীন দাস, নীলাচলে গিয়া স্বরূপ দামোদরের নিকট বাদ্য শিখিয়া আইসেন। এইরূপে ক্ৰমে কয়েক জন বিখ্যাত কীৰ্ত্তনীয়া ও মৃদঙ্গ-বাদক শিক্ষিত হইলেন, যথা দেবীদাস, বল্লভদাস, গৌরাঙ্গদাস, গৈাকুলদাস, ইত্যাদি। ইহারা সকলেই গীত বাদ্য উভয়ে পটু ৷ তখন আর সমস্ত গৌড়ে । তাহাদের ন্যায় কেহ ছিলেন না। ঠাকুর মহাশয় নির্জনে এক একটি পৃদ্ৰ করিয়া, তাহাতে সুর বসাইতেন, পরে দেবী, গোকুল প্রভৃতিকে "শুনাইতেন। তঁহারা সকলে সেটী শিক্ষা করিতে করিতে ঠাকুর SDDBDE DBD D DD DD S BDBDBD ED BB BD & न्ङनं ভাল সম্বলিত এই গরাণহাট কীৰ্ত্তনের প্রশংসা সমস্ত গৌড়ে প্রচারিত হইল, কিন্তু খেতরি দূরদেশ বলিয়া কেহই শুনিতে পাইলেন না।
  • এ দিকে শ্ৰীগৌর-বিষ্ণুপ্রিয়ার যুগল বিগ্রহ ও বল্লভীকান্ত স্থাপনের উদ্যোগ হইতে লাগিল। ঠাকুর মহাশয় ও তাহার শিষ্যগণ এই আনন্ধে উন্মত্ত হইলেন। দেশ উন্মত্ত হইল, আর বলা বাহুল্য যে, রাজা রাণীও উন্মত্ত হইলেন। রাজা কৃষ্ণানন্দ সঙ্কল্প করিলেন যে, এই ৰিগ্ৰহ স্থাপন উপলক্ষে ষে মহোৎসব করিবেন, তাহার ন্যায় কেহ কথন করিতে পারেন নাই। রাজা এই উপলক্ষে সৰ্ব্বস্ব ক্ষেপণ করিবার সঙ্কল্প করিলেন। শ্ৰীগৌরাঙ্গের জন্মতিথি ফাত্তন পূর্ণিমায় বিগ্রহ স্থাপন হইবে, এরূপ

digitized at BRCIndia.com