পাতা:শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত পঞ্চম ভাগ.djvu/১৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


상을8 শ্ৰীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত—৫ম ভাগ [ ১৮৮৩, ১৯শে ডিসেম্বর লইয়া ফিরিতেছেন, পঞ্চবটীর কাছে ঠাকুরের সহিত দেখা হইল। তিনি অমনি ভূমিষ্ঠ হইয়া ঠাকুরকে প্রণাম করিতেছেন। ত্রীরামকৃষ্ণ ( মণির প্রতি )—আমি যাচ্ছিলাম তোমায় খুজতে। ভাবলাম এতো বেলা, বুঝি পাচিল ডিঙ্গিয়ে পালালো । তোমার চোথ তখন যা দেখছিলাম—ভাবলাম বুঝি নারাণ শাস্ত্রীর মত পালালো। তারপর আবার ভাবলাম, না সে পালাবে না ; সে অনেক ভেবে চিস্তে কাজ করে । চতুর্থ পরিচ্ছেদ রামকৃষ্ণ মণি প্রভৃতি ভক্ত সঙ্গে আবার রাত্রে শ্রীরামকৃষ্ণ মণিব সহিত কথা কহিতেছেন। রাখাল, লাটু, হরিশ প্রভৃতি আছেন । শ্রীরামকৃষ্ণ ( মণির প্রতি )—আচ্ছা, কেহ কেহ কৃষ্ণলীলার অধ্যাত্ম্য ব্যাখ্যা করে ; তুমি কি বলে ? মণি—নানামত , তা হলেই বা । ভীষ্মদেবের কথা আপনি বলেছেন— শরশয্যয় দেহত্যাগের সময় বলেছিলেন, কেন কাদছি? যন্ত্রণার জন্ত নয় । যখন ভাবছি, যে সাক্ষাৎ নারায়ণ অৰ্জুনের সারথি হয়েছিলেন অথচ পাণ্ডবদের এত বিপদ, তখন তার লীলা কিছুই বুঝতে পারলাম না, তাই কাদছি। “আবার হকুমানের কথা আপনি বলেছিলেন, হকুমান বলতেন, “আমি বার, তিথি, নক্ষত্র ওসব জানি না, আমি কেবল এক রাম চিস্তা করি।” “আপনি তো বলেছেন, ট। জিনিষ বইতে আর কিছু নাই ব্ৰহ্ম আর শক্তি । আর বলেছেন জ্ঞান ব্ৰহ্মজ্ঞান ) হলে ঐ দুইটি এক বোধ হয় ; যে একের দুই নাই।” শ্রীরামকৃষ্ণ—ই বটে ; চীজ নেবে তা কাটাবন দিয়েই হউক আর ভাল রাস্তা দিয়ে চলে গিয়েই হউক।