পাতা:শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত পঞ্চম ভাগ.djvu/১৭৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SU o শ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত—৫ম ভাগ ] 8 را یاد, c = s 8 [God’s highest Manifestation is man—The Mystery of Divine Incarnation J “ভক্ত তোমরা, তোমাদের বলতে কি ; আজকাল ঈশ্বরের চিন্ময় রূপ দর্শন হয় না। এখন সাকার নররূপ এইটে বলে দিচ্ছে। আমার স্বভাব ঈশ্বরের রূপ দৰ্শন স্পৰ্শন-আলিঙ্গন করা। এখন বলে দিচ্ছে, ‘তুমি দেহ ধারণ করেছ, সাকার নররূপ লয়ে আনন্দ কর ।” “তিনি ত সকল ভুতেই আছেন, তবে মামুনের ভিতর বেশীপ্রকাশ ।” “মানুষ কি কম গা ? ঈশ্বর চিস্ত করতে পারে, অনন্তকে চিন্তা করতে পারে, অন্ত জীব জ ন্তু পারে না ।” “অন্ত জীব জন্তুর ভিতরে, গাছপালার ভিতরে, আবার সর্বভূতে তিনি আছেন ; কিন্তু মানুষে বেশী প্রকাণ।” “অগ্নি তত্ত্ব সৰ্ব্বভূতে আছে, সব জিলিযে আছে ; কিন্তু কাষ্ঠে বেশী e |” “রাম লক্ষ্মণকে বলেছিলেন, ভাই, দেখ হাতী বড় জানোয়ার, কিন্তু ঈশ্বর চিন্তা করতে পারে না ।” “আবার অবতারে বেশী প্রকাশ। রাম লক্ষ্মণকে বলেছিলেন, ভাই যে মানুষে দেখবে উঞ্জিত ভক্তি ; ভাবে হাসে কাদে নাচে গায়, সেইখানেই আমি আছি।” ঠাকুর চুপ করিয়া আছেন। কিয়ৎক্ষণ পরে আবার কথা কহিতেছেন। [Influence of Sri Ramakrishna on Sj. Keshab Chandra Sen J শ্রীরামকৃষ্ণ–আচ্ছ, কেশব সেন খুব আসত। এখানে এসে অনেক বদলে গেল। ইদানিং খুব লোক হয়েছিল । এখানে অনেকবার এসেছিল দলবল নিয়ে। আবার একলা একলা আসবার ইচ্ছা ছিল। কেশবের আগে তেমন সাধুসঙ্গ হয় নাই। “কলুটোলার বাড়ীতে দেখা হোলো ; হৃদে সঙ্গে ছিল। কেশব সেন যে ঘরে ছিল, সেই ঘরে আমাদের বসালে। টেবিলে স্থিত ছিল, অনেকক্ষণ ఙశrá$'ifశీటీ