পাতা:শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত পঞ্চম ভাগ.djvu/২৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


“ শ্রীরামকৃষ্ণ, স্বামী বিবেকানন্দ ও অবতারবাদ २8१ করিয়াছেন। আর বলিয়াছেন, হে ভবসাগরের কাণ্ডারি! তুমি নররূপ ধারণ ক’রে আমাদের ভব বন্ধন খণ্ডন করিবার জন্ত যোগের সহায় হইয়া আসিয়াছ ! তোমার কৃপায় আমার সমাধি হইতেছে। তুমি কামিনীকাঞ্চন ত্যাগ করাইয়াছ। হে ভক্তশরণ তোমার পাদপদ্মে আমায় অম্বুরাগ দাও । তোমার পাদপদ্ম আমার পরম সম্পদ। উহাকে পাইলে ভবসাগর গোষ্পদের দ্যায় বোধ হয় । স্বামীজী রচিত শ্রীরামকৃষ্ণ-আরত্রিক মিশ্র চোতাল খগুন ভব-বন্ধন, জগ-বন্দন বন্দি তোমায়। নিবঞ্জন নররূপধর নিগুন গুণময় ॥ মোচন অঘদূষণ জগভূষণ চিদঘন কায় । জ্ঞানাঞ্জন বিমল-নয়ন বীক্ষণে মোহ যায় ॥ ভাস্বর ভাবসাগর চির উন্মাদ প্রেম পাথার । ভক্তার্জন যুগলচরণ তারণ ভব-পার ॥ জুক্তিত যুগ-ঈশ্বর জগদীশ্বর যোগ সঙ্গয় । নিরোধন সমষ্টিত মন নিরখি তব কৃপায় ॥ ভঞ্জন দুঃখ-গঞ্জন করুণাদন কৰ্ম্ম কঠোর। প্রাণপণ জগত-তীরণ কস্তন কলি-ডোর । বঞ্চন কামকাঞ্চন অতি নিন্দিত ইন্দ্রিয়রাগ ত্যাগীশ্বর হে নরবর ! দেহ পদে আমুরাগ । নির্ভয় গত সংশয় দৃঢ়নিশ্চয়মানসবান। নিষ্কারণ ভকত-শরণ ত্যজি জাতি কুল মান ৷ সম্পদ তব শ্ৰীপদ ভব গোম্পদ বারি যথায় । প্রেমাপণ সম দরশন জগজন দুঃখ যায় ৷ “যেই রাম, যেই কৃষ্ণ ইদানীং সেই রামকৃষ্ণ।” কাশীপুর উদ্যানে স্বামীজী এই মহাবাক্য ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণের শ্ৰীমুখ হইতে শুনিয়াছিলেন । এই মহাবাক্য স্মরণ করিয়া স্বামী বিলাত হইতে কলিকাতায়