পাতা:শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত পঞ্চম ভাগ.djvu/৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শ্রীরামকৃষ্ণ ও আচাৰ্য্য শ্ৰীবেচারাম—ব্রহ্মতত্ত্ব প্রসঙ্গে 8(? স্ত্রীরামকৃষ্ণ-হঁ, দুই সত্য। সাকার নিরাকার দুই সত্য। শুধু নিরাকার বলা কিরূপ জান ? যেমন রসুন চৌকির একজন পো ধরে থাকে,—র্তার বঁাশীর সাত ফোকর সত্ত্বেও । কিন্তু আর একজন দেখ কত রাগ রাগিণী বাজায়। সেরূপ সাকারবাদীরা দেখ ঈশ্বরকে কত ভাবে সম্ভোগ করে। শাস্ত, দান্ত, সখ্য, বাৎসল্য, মধুর—নানাভাবে। “কি জান, অমৃত কুণ্ডে কোনও রকমে পড়া। তা স্তব করেই হ’ক, অথবা | কেউ ধাক্কা মেরেছে আর তুমি কুণ্ডে পড়ে গেছ, একই ফল। দুই জনেই অমর হবে ** Jo "ব্রাহ্মদের পক্ষে জল বরফ উপমা ঠিক। সচ্চিদাননা যেমন অনস্ত জলরাশি। মহাসাগরের জল, ঠাণ্ড দেশে স্থানে স্থানে যেমন বরফের আকার ধারণ করে, সেইরূপ ভক্তি হিমে সেই সচ্চিদানন্দ (সগুণ ব্ৰহ্ম ) ভক্তের জন্য 4 সাকার রূপ ধারণ করেন। ঋষিরা সেই অতীক্রিয় চিন্ময় রূপ দৰ্শন করেছিলেন, আবার তার সঙ্গে কথা কয়েছিলেন। ভক্তের প্রেমের শরীর, † ‘ভগবতভক্ষু দ্বারা সেই চিন্ময় রূপ দৰ্শন হয়।” “আবার আছে, ব্রহ্ম অবাত্মনসো গোচর। জ্ঞান সুৰ্য্যের তাপে সাকার বরফ গলে যায় ; ব্ৰহ্মজ্ঞানের পর, নিৰ্ব্বিকল্পসমাধির পর, আবার সেই অনন্ত, বাক্য মনের অতীত, অরূপ নিরাকার ব্রহ্ম !” "ব্রহ্মের স্বরূপ মুখে বলা যায় না, চুপ হয়ে যায়। অনস্তকে কে মুখে, বোঝাবে। পাখী যত উপরে উঠে, তার উপর আরও আছে। আপনি কি. बल ?” #. আচাৰ্য্য—আজ্ঞা হা, বেদাস্তে ঐরুপ কথাই আছে।

  • অমৃত কুওঃ—আননারূপমমৃত; যদ্বিভাতি । ব্রহ্ম এব ইদম অমৃতমূ, পুরস্তাৎ ব্ৰহ্ম পশ্চাৎ

ব্ৰহ্ম দক্ষিণতশ্চ উত্তরেণ অধশ্চ উদ্ধর্ম চ প্রস্বতম্ ব্ৰহ্ম । মুণ্ডক উপনিষৎ—২, ২, ২ ১ নারদ বলিলেন—আমি শুদ্ধা সৰ্ব্বময়ী ভগবতী-তনু প্রাপ্ত হলাম। প্রযুজ্যমানে মণিতাং শুদ্ধাং ভগবতী-তমুম্। আরব্ধকৰ্ম্মণিকাণে গুপতং পাঞ্চভৌতিকঃ । শ্ৰীমদ্ভাগবত-১৬২৯