পাতা:শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত পঞ্চম ভাগ.djvu/৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শ্রীরামকৃষ্ণ বেলঘরের ভক্তসঙ্গে ee মায়া খাকাতে জীব ঈশ্বরকে দর্শন করতে পাচ্ছে না ! ( মণি মল্লিকের প্রতি ) ৷ তবে ঈশ্বরের কৃপা হলে মায়া দ্বার ছেড়ে দেন। যেমন দ্বারওয়ানরা বলে, বাবু হুকুম করে দিন—ওকে দ্বার ছেড়ে দিচ্ছি ! * * . বেদাস্ত মত আর পুরাণ মত। বেদান্ত মত বলে ‘এই সংসার ধোকার টাটি’ অর্থাৎ জগৎ সব ভুল, স্বপ্লবৎ । কিন্তু পুরাণ মত বা ভক্তিশাস্ত্র বলে যে ঈশ্বরই চতুৰ্বিংশতি তত্ত্ব হয়ে রয়েছেন। তাকে অস্তরে বাহিরে পূজা । কর । “যতক্ষণ আমি বোধ তিনি রেখেছেন ততক্ষণ সবই আছে। আর । স্বপ্লবৎ বলবার যে নাই। নীচে আগুন জ্বালা আছে, তাই হাড়ির ভেতরে ডাল, ভাত, আলু, পটোল সব টগবগ করছে। লাফাচ্ছে, আর যেন বলছে, ‘আমি আছি,’ ‘আমি লাফাচ্ছি।’ শরীরটা যেন হাড়ি ; মন, বুদ্ধি, জল ; ইন্দ্রিয়ের বিষয়গুলি যেন ডাল, ভাত, আলু, পটোল । অহং যেন তাদের অভিমান, আমি টগবগ করছি ! আর সচিদানন্দ অগ্নি । “তাই ভক্তি শাস্ত্রে, এই সংসারকেই ‘মজার কুটী’ বলেছে। রামপ্রসাদের গানে আছে "এই সংসার ধোকার টাটি । তাই একজন জবাব দিয়েছিল, ‘এই সংসার মজার কুট । ‘কালীর ভক্ত জীবন্মুক্ত নিত্যানন্দময়’ । ভক্ত দেখে, যিনিই ঈশ্বর তিনিই মায়া হয়েছেন। তিনিই জীব জগৎ , হয়েছেন। ‘ঈশ্বর-মায়া-জীব-জগৎ এক দেখে। কোন কোন ভক্ত সমস্ত । রামময় দেখে । রামই সব হয়ে রয়েছেন। কেউ রাধাকৃষ্ণময় দেখে ক্ষে কৃষ্ণই এই চতুৰ্বিংশতি তত্ত্ব হয়ে রয়েছেন। সবুজ চশমা পরলে যেমন সবদ সবুজ দেখে।” 鱷 ፄ -! “তবে ভক্তিমতে শক্তি বিশেষ। রামই সব হয়ে রয়েছেন কি কোনখানে বেশী শক্তি আর কোনখানে কম শক্তি। অবতারেতে তি:ি এক রকম প্রকাশ, আবার জীবেতে এক রকম | অবতারেরও দেহু বুদ্ধিদ আছে । শরীর ধারণে মায়া। সীতার জন্ত রাম কেঁদেছিলেন । তৰে মামেব যে প্ৰপদ্যন্তে মায়ামেতাম তরস্তি তে । গীতা—৭॥১৪ @一●可