পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/১২৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ఏరీ ১নংখাদ পত্রে সেনকালেৰ কথা দরিয়াপ্ত গুপ্ত ছিল সে যাহা হউক এক্ষণে জ্ঞাত হইয়াছেন কিন্তু যে ব্যক্তির আহমতি আহসাবে ছাপিতে আরম্ভ করিতেছি তিনি ঐ আইন বিশেষরূপে জ্ঞাত আছেন এবং আছি পশ্চাৎ নিবারণোদ্যোগপত্র পাঠমাত্র চমৎকৃত হইলাম ...তিং নাং [ সম্বাদ তিমিরনাশক । ( ২২ আগষ্ট ১৮২৯ ।। ৭ ভাদ্র ১২৩৬ ) ইশতেহার।—খড়দহনিবাসি শ্ৰীযুক্ত কিশোরীমোহন গোস্বামির প্রেরিত পত্রীদ্বারা বোধ হইল এতদ্দেশে সসৰ্ব্বোপায় শ্ৰীমদ্ভাগবতাদ্যষ্টাদশ পুরাণোপপুরাণ এবং গোস্বামি পাদকৃত হরিভক্তিবিলাস ভক্তিরসামৃত সিন্ধ্যাদি গ্রন্থাধ্যাপনানিলয়াভাবঃ অতএব নানাশাস্ত্ৰাধ্যাপকদ্বারা পূৰ্ব্বোক্ত শাস্ত্রাহরণানন্তরস প্রমাণক ভগবদুপাসনা তত্ত্ব সংগ্ৰাখ্য গ্রন্থ করিয়াছেন অভিলাষ উক্ত সৰ্ব্বশাস্ত্রাধ্যাপন হয় যে ছাত্ৰসকল খড়দহের বাটতে অনুগ্রহপূর্বক আগমন করিয়া অধ্যয়ন করিবেন তাহারদিগের অধ্যয়নানুকূল্য করবেন অতএব সকলের জ্ঞাত কারণ জানাইতেছি ইতি । ( ১২ সেপ্টেম্বর ১৮২৯ । ২৮ ভাদ্র ১২৩৬ ) সৰ্ব্বতত্ত্বদীপিকা এবং ব্যবহার দর্পণনামক এক ক্ষুদ্র নূতন গ্রন্থ গত শ্রাবণ মাসে প্রকাশ পাইয়াছে ঐ গ্রন্থের পরিমাণ ২৪ পত্র তাহার প্রকাশকের নাম ব্যক্ত হয় নাই যাহার স্থানে পাওয়া যায় তাহার নাম ধাম ঐ গ্রন্থোপরি লিখিত আছে মাত্র যাহা হউক ক্রমে প্রকাশকও প্রকাশ হইবেন ঐ গ্রন্থ আমরা গত দিবস পাইয়াছি যদ্যপিও তাহার পূর্বাপর তাবৎ পাঠ করিয়া বিবেচনা করিতে সাবকাশ কাল পাই নাই তথাপি তাহার অনুষ্ঠান ও ভূমিকাপাঠে আমরা অত্যন্ত সন্তুষ্ট হইয়াছি যেহেতুক অনুষ্ঠানপত্রের প্রথম কএক পংক্তি লেখেন যৎকালীন লোকের সভ্যতা ও ভব্যতার বৃদ্ধি হয় তৎকালীন সকলেই প্রায় বিদ্যাধ্যয়ন করিতে বাস্থিত হয় তদ্ধ,দ্ধার্থে নূতন পুস্তকাদির আবশুক হয়। ইংগ্রগু ও ফ্রেঞ্চ এবং আর২ সৰ্ব্ব উপদ্বীপে নানাপ্রকার পুস্তক মুদ্রাঙ্কিত হইয়া তত্তদেশীয় লোকের বিবিধরুপে বিদ্যার এবং জ্ঞানের প্রাচুর্য্য হইয়াছে ইত্যাদি অনেক লিখেন তাহ আমরা ক্রমে২ চন্দ্রিকায় প্রকাশ করিতে বাঞ্ছা করিয়াছি এবং তদ্বিষয়ে আমারদিগের যাহা বক্তব্য তাহীও তাহার নিম্ন ভাগে লিখিব । সংপ্রতি ঐ অনুষ্ঠানপত্রের কএক পংক্তিতে বোধ হইল যে এতদ্দেশীয় লোক অসভ্য অভব্য ছিলেন এক্ষণে সভ্যতা ও ভব্যতার বৃদ্ধির আকাজক্ষী হইয়াছেন কিন্তু পুস্তকাভাবে হইতেছেন না তজ্জন্য ঐ মহাশয় এই অভিনব পুস্তক প্রকাশ করিতে প্রবৃত্ত হইয়াছেন এবং ইহার প্রথম খণ্ড প্রকাশ করিয়াছেন পরে আর২ হইবেক তাহাতে লোকের জ্ঞান জন্মিবেক এবং সৰ্ব্বজ্ঞ হইবেন । যাহা হউক সৰ্ব্বতত্ত্বদীপিকাপ্রকাশক মহাশয় ধন্য যেহেতুক এমত কৰ্ম্মে প্রবৃত্ত হইয়াছেন যাহা পূৰ্ব্বকালীন মহামুনি ঋষিবর এবং নান। কাব্যালঙ্কারাদি শাস্ত্রবক্তারা ষাহাতে অক্ষম হইয়াছেন অর্থাৎ, জ্ঞানী ও সৰ্ব্বজ্ঞ কোন ব্যক্তিকেই করিতে পারেন নাই তাহা যদ্যপি হইত তবে তাহারদিগের রচিত গ্রন্থ অনেক আছে এবং অনেকে পাঠ করিয়াছেন সে