পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/৩২৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ধৰ্ম্ম ২৮-৯ এক ব্যক্তির কিম্ব অন্য ধৰ্ম্মাশ্রিত ব্যক্তিরদিগের মতে কিরূপে প্রামাণ্য এবং বিশ্বাস হইতে পারিবে যেহেতুক ধৰ্ম্ম এবং ব্যবহারবজিত ব্যক্তিরদিগের যে নূতন প্রমাণ এবং ধারা তাহা জগতের মান্ত কোন প্রকারে হইতে পারে না। পরস্তু পূৰ্ব্বোক্ত যে তিন প্রকরণ প্রদান করিতে আশ্বাস করিয়াছেন তাহা আমরা বিশেষ শ্রুত আছি যে কএক বৎসর গত হইল এই বিষয় রহিত করিতে আর একবার সকলে চেষ্টাম্বিত হইয়াছিলেন তাহাতে মহামহিম শ্ৰীযুত লার্ড আমহাষ্ট সাহেব বিশেষ অনুসন্ধান করিয়া এবং নানা প্রমাণ প্রয়োগ সংগ্রহকরত যথার্থ জ্ঞাত হইয়া ঐ পূৰ্ব্বোক্ত যে প্রথম প্রকরণ তাহাই স্থাপিত করিলেন তদবধি সেই রীতি সৰ্ব্বত্র চলিত হইতেছে এবং ইহাও সৰ্ব্বদা প্রচার আছে যে যখন যে স্থানে সহস্থত হয় সেই স্থানে তত্রস্থ ইংল্পগুীয় মহাশয়েরা এবং রাজসংক্রান্ত লোকেরা স্বয়ং গমন করেন এবং ঐ - পতিপ্রাণাকে পতির সহিত গমননিবারণকরণজন্য অনেক চেষ্টা ও নানা লোভ দেখান কিন্তু তাহাতে কোন মতে কেহ কাহাকেও ক্ষাস্তা করিতে পারেন নাই সুতরাং ইহাহইতে অধিক সন্দেহভঞ্জনের কারণ আর কি আছে। এই বিষয় শ্ৰীযুতের যদি অধৰ্ম্ম কিম্বা অশাস্ত্র বলিয়া জ্ঞান হইয়া থাকে তবে এ অধীনদিগের প্রতি অনুমতি করিলে শাস্ত্রোক্ত ষে সকল প্রমাণ ও প্রয়োগ আছে তাহ অনায়াসে দেওয়া যাইতে পারে। ইংল্পগুীয় মহাশয়ুদিগের এই বিষয়ে এতাদৃশ প্রতিবন্ধকতা এবং সন্দেহহওনের কারণ এই অনুভব হয় যে হিন্দুদিগের স্ত্রীলোকের এতাদৃশ অসম সাহস কৰ্ম্ম ইচ্ছাপূর্বক হয় এমত তাহারদিগের মতে কোনরূপে বিশ্বাস হয় না কিন্তু তাহার। এমত দেখিয়া কিম্ব শুনিয়াও থাকিবেন ষে স্ত্রীলোক পতিপ্রাণ হয় সে স্বচ্ছন্দে মনের আনন্দে ও হাস্ত বদনে স্বামির জলচ্চিতায় অনায়াসে আরোহণ করে অতএব এবিষয়ে জোরাবরি ইত্যাদির সম্ভব কোনরূপে হয় না স্ত্রীলোকদিগের এ আশ্চৰ্য্য কৰ্ম্মে প্রবৃত্তিহওনের বিশেষ ফল এই আছে যে ধৰ্ম্মশাস্ত্রোক্ত যে সকল ফল আছে তম্ভোগী হন এবং লোকত আপন নাম ও কুল উজ্জল করেন। অতএব অামারদিগের ইহ নিতান্ত বিশ্বাস আছে যে দেশাধিপতি মহামহিম শ্ৰীযুত লার্ড উলিয়ম বেণ্টীঙ্ক সাহেব যিনি দুষ্টদমন শিষ্টপালন ও ধৰ্ম্ম সংস্থাপনকরণজন্য এতদ্দেশে শুভাগমন করিয়াছেন তিনি আমারদিগের চিরকালাবধি স্থাপিত যে ধৰ্ম্ম কিম্ব রীতি আছে তাহার অন্যথাকরণে কখন প্রবৃত্ত হইবেন না । ( ১২ ডিসেম্বর ১৮২৯ ।। ২৮ অগ্রহায়ণ ১২৩৬.) ...লার্ড উলিয়ম বেণ্টিঙ্ক গবর্নর জেনরল বাহাদুর এমন নহেন যে কেহ মিথ্যা কথা বা প্রশংসাসূচক কথার দ্বারা তাহার প্রবৃত্তি জন্মাইতে পারিবেক ইহা আমরা বিশেষ জ্ঞাত আছি। যেহেতুক আমরা শুনিয়াছি শ্ৰীশ্ৰীযুতের অভিপ্রায় এই যে এ বিষয় যদি যথাশাস্ত্র না হয় তবে রহিত করিবেন আর যদ্যপি যথাশাস্ত্রসিদ্ধ হয় তবে ঐ সহগমনে ষে ষে কণ্টক আছে তাহাই রহিত করিবেন ইহাতেই স্পষ্ট বোধ হইতেছে শাস্ত্র ף כי