পাতা:১৫১৩ সাল.pdf/৩২

উইকিসংকলন থেকে
Jump to navigation Jump to search
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
২১
১৫১৩ সাল।

 সপ্তাহে একদিন, আমরা, অর্থাৎ ডাইরেক্টররা, আফিসে অ্যাসিয়া “চলতি কার্য্য” সম্পন্ন করিতে লাগিলাম। এইরূপে প্ৰায় দুই মাস গত হইল। তাহার পর হাসানজী কোম্পানী একটী রিপোর্ট পাঠাইল, তাহাতে আমাদের আশা হইল যে চারি মাসের মধ্যে জাহাজ প্ৰস্তুত করিতে পারিবে। তখন আমরা কাপ্তেন, নাবিক প্রভৃতি নিয়োগের চেষ্টায় প্রবৃত্ত হইলাম। আমাদের উৎসাহ কিরূপ বর্দ্ধিত হইয়াছিল, তাহা বৰ্ণনা করা যায় না।

 একদিন বৈকালে আমি আফিস হইতে বাটী আসিবার উদ্যোগ করিতেছি, এমন সময় বন্ধুবর অতি ব্যস্তভাবে আমার ঘরে প্রবেশ করিালেন। ব্যাপার শীঘ্রই জানিতে পারিলাম। জাহাজের নক্সার ডুপ্লিকেট, যাহা বন্ধুবরের নিকট ছিল, তাহা চুরি গিয়াছে! কি সর্ব্বনাশ! চুরি কি প্রকারে হইল, বন্ধুবর বুঝিয়া উঠিতে পারিতেছেন না। মন কেমন এক রকম হইয়া গেল। তাঁহার বাসায় গেলাম। তিনি পাঠাগারে লইয়া গিয়া, একখানি চেয়ারে অামায় বসিতে বলিয়া বলিলেন:—

 “কি করিয়া চুরি হইল, বুঝিয়া উঠিতে পারিতেছি না। এই সেফ্‌টায় আমার যত প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র, টাকা কড়ি আদি খাকে। আজ প্রায় সপ্তাহ খানেক হইল ইহা খুলি নাই। কেন না, খুলিবার আবশ্যক হয় নাই। অদ্য আমার রাঘবপুরের জমীদারীর কাগজপত্র দেখার আবশ্যক হওয়ায় ইহা খুলি। তখন দেখিলাম নক্সাখানি নাই। তন্ন তন্ন করিয়া দেখিয়াছি। তুমি যদি দেখিতে ইচ্ছা কর দেখিতে পার।”

 সেফ্‌টা ভাল করিয়া দেখিলাম। বাস্তবিকই নক্সাখানি নাই। কেমন একটা অবসন্নভাব বোধ হইতে লাগিল। বন্ধুবরকে জিজ্ঞাসা করিলাম:—

 “সেফ্‌টার চাবী কোথায় থাকে?”