পাতা:১৯০৫ সালে বাংলা.pdf/৬৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[ to বিশেষ আগ্রহ প্রকাশ করিতেছেন। মুসলমানেরা যে কর্তৃপক্ষের হন্তে অধিক পরিমাণে নিগৃহীত হন নাই, তাহার কারণ মুসলমানদিগের স্বদেশ-সেবার অভাব নহে। কর্তৃপক্ষের অবলম্বিত কুটনীতির ফলেই এইরূপ ঘটিয়াছে। হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে বিরোধ উপস্থিত করিবার জন্য র্তাহারা ঐরূপ ভেদনীতির অনুসরণ করিতেছেন। হিন্দু মুসলমানে চিরদিনই সম্ভাব আছে, মুসলমান সম্রাটদিগের শাসনকালে হিন্দু মুসলমান স্থখস্বাচ্ছন্দ্যে এবং স্বহৃদভাবে কালযাপন করিয়াছেন। কিন্তু মুসলমানের সহিত হিন্দুর মিলন ও সম্প্রীতি কর্তৃপক্ষের শাসননীতির প্রতিকুল। এইজন্য তাহারা উভয় জাতির মধ্যে বিবাদ ঘটাইবার চেষ্টা করিতেছেন। তবে গবর্ণমেণ্ট এ বিষয়ে যতই চেষ্টা করুন না কেন, পরিণামে র্তাহাদিগের উদেশ্ব সম্পূর্ণ বিফল হইবে। যে সকল নাম সভামধ্যে সে দিন প্রকাশিত হয় নাই, তন্মধ্যে যে একজনও নিগৃহীত মুসলমান ছিলেন না, একথা কে বলিতে পারে? নানা কারণে এ অবস্থায় সকলের নাম প্রকাশিত হয় নাই। যাহা হউক, এ স্থলে সে বিষয়ে অধিক আন্দোলন করা অনাবশ্যক। অতঃপর বাবু লালবিহারী সাহা খৃষ্টান সমাজের পক্ষ হইতে সভার কার্য্যে সম্পূর্ণ সহানুভূতি প্রকাশ করেন। ইহার পর বাৰু কৃষ্ণকুমার মিত্র ও সভাপতি মহোদয় প্রভৃতি বক্তৃতা করিলে শ্ৰীযুক্ত গীম্পতি রায়-চৌধুরী কাব্যতীর্থ সভার উদেশ্বও কার্ধ্যের আলোচনা পূর্বক সভাপতি মহোদয়ের ধন্যবাদ করিলে जख्ठोंछछ ट्म्र। o