পাতা:অক্ষয়-সুধা - অক্ষয়কুমার দত্ত.pdf/৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

২৪ অক্ষয়-সুধা

করেন, পরে নানা কারণে কুলোকের সহিত সহবাস করা তাহারও অভ্যাস হইতে পারে ও তদ্দার অধর্মের প্রতি অশ্রদ্ধার হ্রাস হইয়াক্রমশঃ নানাপ্রকার পাপাচরণে প্রবৃত্তি হইতে পারে। অতএব অসৎ-সঙ্গ পরিত্যাগ ও সাধু-সঙ্গ অবলম্বন করা সর্ব্বতোভাবে শ্রেয়স্কর। সাধু-সঙ্গের গুণ অতি আশ্চর্য্য। যেমন পরম শোভাকর পূর্ণ-চক্র। সুধাময় কিরণ বিকীর্ণ করিয়া, ভূমণ্ডলস্থ সমস্ত বস্তুকে অত্যাশ্চর্য্য অনির্বচনীয়। শোভায় শোভিত করে, সেইরূপ পরমেশ্বর-পরায়ণ সাধু-সঙ্গ পুণ্যাত্মারা সদালাপ ও সপদেশ প্রদান করিয়া, পাশ্ববর্তী পুণ্যার্থীদিগের অন্তঃকরণ পরম রমণীয় ধৰ্ম-ভূষণে ভূষিত করিতে থাকেন॥ র্তাহাদের সহিত সহবাসে যে ব্যক্তির অত্যন্ত অনুরাগ ও পরিতোষ জন্মে এবং আপন অন্তঃকরণ, প্রসন্ন ও পবিত্র রাখিবার নিমিত্ত একান্ত যত্ন ও প্রতিজ্ঞা থাকে, সেই ব্যক্তিই অধর্ম্মকে দুর্গন্ধবৎ পরিত্যাগ করিয়া ধর্ম্মজনিত বিশুদ্ধ সুথ-সম্ভোগে অধিকারী হইতে পারে। পরম মনোহর পুষ্পোচ্যানস্থিত বিশুদ্ধ-বায়ু-সেবিত অট্টালিকাতে অবস্থিতি করা যাহার সতত অভ্যাস, দুর্গন্ধবিশিষ্ট তর্কারজন ক অপরিচ্ছন্ন স্থানে বাস করিতে অবশ্যই র্তাহার বৃণা ও বিরক্তি জন্মে। সেইরূপ, যে ব্যক্তি আত্ম প্রসাদ ও সাধুসঙ্গকে অমূল্য সম্পত্তি জ্ঞান করিয়াতাহার লাভার্থে সতত যত্নবান থাকেন, এবং তাহা লাভ করিতে পারিলে, পরম পবিত্র আনন্দরসে অভিষিক্ত হন, সেই ব্যক্তি যাবতীয় কুকর্ম্ম হৰ্গন্ধবৎ অশ্রদ্ধেয় ও পরিত্যাজ্য বিবেচনা করিয়া, উপস্থিত টুপ্রবৃত্তির নিবৃত্তি করিতে অন্যান্য লোক অপেক্ষা অধিক সমর্থ, তাহার সনেহ নাই। অতএব অধর্মের আক্রমণ নিবারণপুরঃসর ধর্ম্মব্রত পরিপালনার্থ অসৎসঙ্গ পরিত্যাগ ও সাধুসঙ্গ লাভে নিযুত যত্নবান্ থাকা সর্ব্বতোভাবে বিধেয়।