পাতা:অক্ষয়-সুধা - অক্ষয়কুমার দত্ত.pdf/৭৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

সাহিত্য, পরিশ্রম। ২৫

পরিশ্রম মনুষ্যের পণ্ডপক্ষাদি ইতর প্রাণীর ন্যায় অযত্ন সদৃত অন্নাচ্ছাদন ও স্বভাবজাত বাসস্থান প্রাপ্ত হন নাই; তাহাদিগকে নিজ-যত্নে ঐ সমুদায়। উৎপাদন ও নির্মাণ করিতে হয়। জগদীশ্বর যেমন। পরমেশ্বরের ঐ সমস্ত বস্তু প্রস্তুত করা। মনুষ্যের পক্ষে আবশ্যক অভিপ্রায় করিয়া দিয়াছেন, তাহাদিগকে তদুপযোগী শরীর ও মন প্রদান করিয়া এবং বাহ্য বস্তু সমুদায় তাহার সম্পূর্ণ উপযোগী করিয়া সঙ্কেতে এই অভিপ্রায় প্রকাশ করিয়াছেন, মনুষ্য আপনার শরীর ও মন পরিচালন-পূৰ্বক জীবিকানিৰ্বাহ ও -স্বচ্ছলতা লাভ করিবেন। তিনি এই অশেষ কল্যাণকর অমুমতি সর্বত্র প্রচার করিয়া রাখিয়াছেন; তাহা পালন করিলেই সুথলজঘন করিলেই ছঃথ। অনেকে পরিশ্রম কেবল ক্লেশের বিষয় বোধ করেন; কিন্তু এরূপ বিবেচনা করা কেবল ভান্তির কর্ম্ম। কেবল কল্যাণই পরিশ্রমের চরম। ফল। পরম শোভাকর প্রশস্ত অট্টালিকা, বিকসিত পরিশ্রমের মহিমা পুষ্প-পরিপূর্ণ মনোহর পুষ্পোঠান, সুচিকণ চিত্তরঞ্জন পণ্যপরিপূর্ণ আপণশ্রেণীতড়িতসম বেগবিশিষ্ট বাষ্পীয় পোত ও বাষ্পীয় রথ, ধন্য শাসন-সংস্থাপক পবিত্র বিচারস্থান, জ্ঞানরূপ মহারম্নের আকর স্বরূপ বিদ্যামন্দির, পৃথিবীন্থ জ্ঞানিগণের জ্ঞান সমষ্টিস্বরূপ পুস্তকালয় ইত্যাকার সমুদায় শুভকর বস্তুই কায়িক ও মানসিক পরিশ্রমের অসীম মহিমা পক্ষে সাক্ষ্য দান করিতেছে। পরিশ্রম যে পরিণামে মুথোৎপাদন করে, ইহা বিবেচক লোকেরা সহজে স্বীকার করিয়া থাকেন। অনেক দেশের অনেক গ্রন্থকার আলত্যের ভূয়োভূক্ষ্মঃ নিন্দা করিয়া গিয়াছেন। কিন্তু পরিশ্রম যে কেবল পরিণামেই