পাতা:অধিকার-তত্ত্ব.pdf/৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


\డి 6 অধিকার-তত্ত্ব } & স্বাধীনতা দ্বারা ব্রহ্মজ্ঞানে পরিপক্ক হইভে থাকেন। একবারে উপযুক্ত উন্নতি হওয়ার অসম্ভাবনা বিধায় যদি কেহ সেই ক্রামোন্নতির সঙ্গে সঙ্গে ফলকামনায় আবদ্ধ হইয়া আত্মার লালস দ্বারা পুত্তলিকার আরাধনা করেন তাহা ঈশ্বরের নিয়মবিৰুদ্ধ নহে । ইহা জানিয়া ব্রহ্মজ্ঞ ব্যক্তি মনের সহিত তাহাতে অনুমোদন করেন এবং তাদৃশ অনুমোদন জন্য র্তাহার সতেজ আত্মা কখন পুণ্য ভিন্ন পাপ বোধ করে না । কারণ তিনি বিলক্ষণ অবগত অাছেন যে পুত্তলিকার পূজা পরিভ্যাগী অনেক ব্রহ্মোপাসক উপরি উক্ত প্রকার পৌত্তলিকের অনেক নিম্নদেশে মুহ্যমান রহিয়াছেন । ৯ । সামাজিকধৰ্ম্ম ও উপাসনা-প্রণালী যতই কেন পরিশুদ্ধ হউক না, ষভই কেন বর্তমান কালের ব্রহ্মোপাসকগণ ভক্তিপূর্বক ব্রহ্মোপাসনা কৰুন না, তাহারদের মধ্যে ত্রহ্মের আধ্যাত্মিক ভাবুক ও ব্রহ্মজ্ঞানী অপেক্ষাকৃত অলপংখ্যক দৃষ্ট হইবেক । ফলতঃ তাহাতেও বিশেষ ক্ষতি নাই, কেননা যাহার যেমন অধিকার তিনি ঈশ্বরকে তদনুযায়ী জানিয়া প্রীতিপূর্বক উপহার পূজা করিয়া জীবনের সাফল্য লাভ করিবেন—ইহা সম্পূর্ণ স্বাভাবিক, এবং সম্পূর্ণ সত্য । কিন্তু আক্ষেপের বিষয় এই যে, ভাদৃশ দুৰ্ব্বল ব্রহ্মজ্ঞানীরা তঁহারদের অপেক্ষাকৃত দুর্বল ভ্রাতাদিগের শ্রদ্ধাযুক্ত প্রতিমাপূজাকে পাপাচার বলিয়া নিন্দ করেন ; ররং ইক্ষাও ক্ষমার যোগ্য ৷ কিন্তু উক্তরূপ দুৰ্ব্বল ব্রহ্মোপাসকগণের মধ্যে আবার ভক্তিহীন-চঞ্চল-উপাসক