পাতা:আরোগ্য - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/১৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আর ক্ষোভে যেন ফেটে যেতে চায় বুকটা । যে চিকিৎসা সবার বেলা খাটে, তার বেলা সে চিকিৎসাটা পৰ্য্যন্ত খাটবে না ? তার রোগ আরোগ্য হবে না ? কেন আরোগ্য হবে না ? কেন তার এই অভিশাপ ? ছটফট করার বদলে সে এবার গুম খেয়ে থাকে ৷ ‘ কাজে যায়। না, কারো সঙ্গে কথা বলে না, পূরে তিনটে দিন চুপচাপ ঘরে বসে কাটিয়ে দেয়। ডাক্তার দত্তের কথাগুলি ঘুরিয়ে ফিরিয়ে ভাবে। আজি পাচ মাসের ওপর ডাক্তার দত্তের কাছে তার আনাগোণা ৷ কত কম টাকা নিয়ে কত ধৈৰ্য্যের সঙ্গে কত সময় দিয়ে ডাক্তার দত্ত তার রোগটা বুঝবার চেষ্টা করেছে, তার চিকিৎসা চালিয়ে cqCPC2 সে অবশ্য জানে এটা দয়া বা খেয়াল নয় ডাক্তার দত্তের । তার টাইপের রোগীর চিকিৎসা আজ পৰ্য্যন্ত সে করেনি, সে একেবারে নতুন রকম রোগী। তাই তার বৈজ্ঞানিকের মনে টাকার কথা সময়ের দামের কথা বড় না হয় আগের সঙ্গে তার রোগটা বিশেষভাবে পরীক্ষা করার, এবং চিকিৎসা করে তাকে আরোগ্য করার জোরালো তাগিদ জেগেছে । দিনের পর দিন এত করে যে কথাগুলি ডাক্তার দত্ত তাকে বোঝাতে চেয়েছে, তার কোন কথাটা সে বোঝেনি ? মনে তার অনেক অন্ধকার । সমাজ আর জীবন, বাস্তবতা আর মানসিক প্রক্রিয়া-এ সমস্ত তলিয়ে বুঝবার সাধ্য তার নেই। কিন্তু ডাক্তার দত্ত গোড়াতেই স্পষ্টভাষায় বলে দিয়েছে যে তাকে Nebr