পাতা:আরোগ্য - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/১৪৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তাদের দেখা হবে মায়াকে এই সুসংবাদ জানিয়ে খুন্সী করার জন্য, ভোরে আরেকবার তাকে ডুব দিতে আসতে হল ডোবায়। भ3 उ२न् डcन । দুধের গেলাসের বদলে কয়েকখানা এটাে বাসন হাতে নিয়ে এসে বলে, রাগ কোরো না। দুধ দুয়ে নিয়ে চুরি করে খাই বলে পরশু, সকালে বাখ্যারি দিয়ে মেরেছে। পিঠে কালচে পড়ে গেছে একেবারে । দেখবে ? সায়া ব্লাউজের বালাই নেই মায়ার। আঁচলটা সরিয়ে দিতেই কঁধ থেকে কোমর পর্য্যন্ত টানা ব্লু ব্ল্যাক কালির মত মৃত রক্তের কালশিরাটা চোখে পড়ে । খুব জোরেই বাখ্যারি মেরেছে। কেশব বলে, এমন করে তোমায় মারতে পারে ? তুমি কি করলে ?”

কি আর করব ? কপালের নিন্দে করে খানিকক্ষণ কঁদলাম।

বাসন কখানা চটপট মেজে নিতে নিতে মায়া কথা বলছিল-মুখ না তুলেই । তার মানেও কেশব জানে ঘাটে একা তার সঙ্গে ঘনিষ্টভাবে কথা বলতে দেখে আবার যদি পিঠে বাখ্যারি বসায় । স্থির দৃষ্টিতে তার দিকে চেয়ে থেকে কেশব বলে, আমারও তোমায় মারতে ইচ্ছে করছে । ধোয়া বাসন হাতে মায় উঠে দাড়ায় ।

তবে আমি পলাই । বেলায় যাব ।

বলেই মায়া যেন মিলিয়ে যায় ভোরের আবছা আলোয়। মায়া বেলায় আসবে জানিয়ে রাখলেও কেশব বেরোবার জন্য তৈরী হয় । মনটা একেবারে বিগড়ে দিয়েছে মায়া । S 8 S