পাতা:ইন্দুমতী - যতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/৪০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
২৮
ইন্দুমতী।

করিতেন পাঠ কত সুন্দর পুস্তক,
শুনিতেন দূর হতে আসিত ভাসিয়া,
ঘুঘুর মধুর রব, পাপিয়ার তান,
কোকিলের প্রাণ ভরা হৃদয় উচ্ছ্বাস,
স্ফটিক-জলের তরে চাতক-চিৎকার,
"বউকথা কও” বলি বিদ্রূপ করিয়া
বিহগ যাইত উড়ি বৃক্ষের শাখায়,一
সেই দিন সেই সুখ কোথা গেল হায়!
ফিরিয়া কি আসিবেনা আর পুনরায়?
 হায় সেই গৃহ তাঁর! স্বামীর সংসারে
ছিলনা অপর কোন আত্মীয় স্বজন।
তাঁহার মতন পতি, বাল্যে পিতা হারা,
মাতা হারা, ভাই ভগ্নি নাহি ছিল কেহ।
পালন করিত জ্যেঠা, জ্যেঠাই তাঁহাকে।
পড়িতে লাগিল মনে কেমনে তাঁহারা,
বিস্তারি চাতুরী জাল স্বামীর সকলি
করিল হরণ আর ইন্দুর ভুষণ।
মনদুঃখে স্বামী তাঁর ছাড়ি জন্মভূমি,
তাঁহাকে লইয়া সাথে, জীবিকা উদ্দেশে,
কত সুখ আশাল’য়ে রাজধানী পথে,
ছিলেন আসিতে তরি করি আরোহণ,
দৈবের বিপাকে পড়ি ডুবিল