পাতা:কবিকঙ্কণ-চণ্ডী (প্রথম ভাগ) - চারুচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৩৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SÓNኃ8 কবিকঙ্কণ-চণ্ডী ঋত্বিকদিগের গোত্র ও পূর্বপুরুষগণের নামের দ্বারা এইরূপ স্বাতন্ত্র্যের উদ্দেশ্য সাধিত হইয়া থাকে। যদি কৃষ্ণকে গোত্ৰ-নাম বলিয়া গ্ৰহণ করিতে হয়, তাহা হইলে বলা যাইতে পারে যে, বাসুদেব কাষ্ণায়ন গোত্রের অন্তভুক্ত ছিলেন। যদিও এটি ব্ৰাহ্মণ ও পাবাশার গোত্ৰ ! এই কৃষ্ণ নামে বরাবর পবিচিত হইয়া আসিয়া প্ৰাচীন কৃষ্ণের বিদ্যাবত্তা ও অধ্যাত্মাধৰীষণাও তঁহাতে আরোপিত হইয়াছে। দেবকীপুত্র হওয়াতেও কিংবদন্তী मश्रुझिङा कझिझाgछु ! পরযুগে বাসুদেবই কৃষ্ণ হইতে অভিন্ন বলিয়া প্ৰতিপন্ন হইয়াছেন। ব্ৰাহ্মণ গ্রন্থাদির পর আমরা রামায়ণে কৃষ্ণকে দেখিতে পাই । রামায়ণেব সময়ে কৃষ্ণ অবতীর্ণ হন নাই । এক থা অস্বীকার করিবার উপায় নাই । অথচ বাল্মীকি কৃষ্ণের নাম উল্লেখ করিতেছেন । বাল্মীকি যখন রাম না হইতে রামায়ণ লিখিতে পারিয়াছিলেন, তখন কৃষ্ণ না হইতেও কৃষ্ণনাম যে তিনি করিতে পরিবেন, তাহাতে আর বিচিত্ৰতা কি ? রামায়ণের যুদ্ধকাণ্ডে ১১৯ অধ্যায়ে বেদবিদ ব্ৰহ্মা কাকুৎস্থ রামকে বলিতেছেন লোকানাং ত্বম পিবো ধৰ্ম্মো বিশ্বকসেনশ্চতুভুজঃ।। শাঙ্গ ধন্বা হৃষীকেশ: পুরুষঃ পুৰুষোত্তমঃ। অজিতঃ খড়গধূগণ বিষ্ণুঃ কৃষ্ণশ্চৈব বৃহদ্বলঃ। বামায়ণের যিনি ভাষ্যকাব্য, তিনি রুষ্ণ শব্দে সৰ্ব্বত্র “কৃষ্ণস্তদ্বর্ণঃ” বুঝিয়াছেন। সিদ্ধান্তীরা বলেন, ইহ; ভবিষ্যদ্বাণী । রামায়ণ আবাবা বলিতেছেন “সীতা লক্ষ্মীর ভবান বিষ্ণুর দেবঃ কৃষ্ণঃ প্ৰজাপতিঃ । বধাৰ্থং রাবণ্যস্ত ত্বং প্রবিষ্টো মানুষীং তনুম।” রামায়ণে সৰ্ব্বত্র রামকে বিষ্ণুর সহিত এক, তঁহা হইতে অভিন্ন কবিয়া বৰ্ণনা করা হইয়াছে। এইরূপে মহাভাবতেও কৃষ্ণকে বিষ্ণু বলা হইয়াছে। বিষ্ণু-পুরাণ ভাগবত ব্ৰহ্মবৈবৰ্ত্তপুরাণ এবং পরবর্তী কালেব বৈষ্ণব গ্রন্থেও কৃষ্ণ ও বিষ্ণু এক বলা হইয়াছে। দুই এক স্থলে কৃষ্ণকে বিষ্ণু হইতে সামান্য তত্ত্বত: পৃথক করা হইয়াছে, যদিও বিষ্ণু- ও ভাগবত-পুরাণে কৃষ্ণ দুই-একবার বিষ্ণুর অংশাবতাব বলিয়া বিবৃত হইয়াছেন, তথাপি তিনি সাধারণতঃ বিষ্ণুর সম্পূর্ণ অবতার ও পরব্রহ্ম বলিয়া উক্ত হইয়াছেন। ভাগবত-পুরাণ বলিতেছেন श्ioनॉर्थम्र क्षश्ठि अभंभाटेब्रडक्ट फ़। অবতীর্ণে হি ভগবান অংশন জগদীশ্বরঃ ॥