পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/১০৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১•১• . কলিকাতা সেকালের ও একালের । চেষ্টাতেই, তাহার নিজ বাটতে হইয়াছিল। মাইকেল মধুসূদন দত্তের মেঘনাদবধকাব্য এই সময়ে প্রচারিত হয়। কবি মধুসূদনের সম্মানের জন্ত কালীপ্রসন্ন বাবু, নিজের প্রাসাদতুল্য বাটতে একটা সভা আহবান করেন।. এই সভায় তিনি মাইকেলকে একটা অভিনন্দন পত্র ও ক্লারেটমদ্যপানোপযোগী এক रृोभाषा পাত্র দান করেন। • - কালীপ্রসন্ন সিংহ, সৰ্ব্ববিধ দেশহিতকর সাধারণকাৰ্য্যে যোগদান করিতেন। অসংখ্য পণ্ডিতমণ্ডলী পরিবেষ্টিত হইয়া থাকায়—তাহার বিষ্ঠালোচনার প্রবৃত্তি অতি প্রবল হইয় উঠে। টেকচাঁদ ঠাকুরের “আলালের স্বরের দুলাল” ও কালীপ্রসঙ্গের “ছতোম-পেঁচার-নক্স” প্রভৃতি পুস্তক, সেকালের বঙ্গ সমাজে বিশেষভাবে সমাদৃত হইয়াছিল। সেকালের কলিকাতার রাঙ্গালী-সমাজের দোষ গুণ “স্থতোমে” অতি উজ্জ্বলভাবে প্রতিফলিত হইয়াছিল। বৰ্ত্তমানকালে এই শ্রেণীর পুস্তক রুচিপ্রদ না হইলেও, অতীত যুগে ইহার যথেষ্ট আদর ছিল। “হক-কথা” বলিয়া আরও একখানি এই শ্রেণীর সমাজ চিত্র, ইহার পরবর্তী সময়ে রচিত হয়। ইহাঙ্গ প্রণেতা যে কে, তাহার কোন পরিচয় নাই । সমগ্র মহাভারতের অনুবাদ কাৰ্য্যে, আট বৎসর অতীত হয়। কালীপ্রসন্ন সিংহ, এই স্ববৃহৎ গ্রন্থ বিনামূল্যে সুধীসমাজে বিতরণ করিয়াছিলেন। ধরিতে গেলে, জোড়াসকোর সিংহবাটীর সমুজ্জ্বল রত্ব এই কালীপ্রসন্ন সিংহ ৰা- “কালী-সিজি” । লংসাহেব নীলদর্পণের ভাষান্তর করিয়া যে সময়ে অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হন, মহানুভব কালীপ্রসন্ন, তাহার সেই বিপত্তিকালে জরিমানার টাকা আদালতে দাখিল করিয়া, লংসাহেবকে কারাদও হইতে মুক্ত করেন। কালীসিংহের উপযুক্ত পুত্র বিজয়চন্দ্র সিংহ মহাশয় বৰ্ত্তমানে পিতার সুনাম রক্ষা করিয়া চলিতেছেন। হিন্দু-প্রেটিক্সট পত্রিকা, এখন তাহারই তত্ত্বাৰধারণে নুতনভাবে প্রকাশিত হইতেছে। তিনি অতি বিনয়ী, সদালাপী ও সৎকর্থে উৎসাছীল। - কলিকাতার ঠাকুর গোষ্ঠী। . মানে, সন্ত্রমে, বিদ্যায় ও যশোগৌরবে কলিকাতার ঠাকুর-গোষ্ঠী, ভারতের । সৰ্ব্বত্র বিখ্যাত। ষোড়াসাঁকে ও পাথুরিয়াঘাটার ঠাকুর মহাশয়গণ, একই ৰংশ সস্থত। এই গোষ্ঠীর বিশেষৰ এই, একাধারে এই বংশে বাণী ও কমলার বরপুত্ৰগণ আবির্ভূত হইয়াছেন। ইয়াদের সকলের সম্বন্ধে বিশদভাবে