পাতা:কাফ্রি দাসের বৃত্তান্ত - লী রিচমণ্ড.pdf/২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

২১

লাম, কারণ অশ্বকে পাহাড়ের উপরে ছাড়িয়া আসিয়াছিলাম। কাফ্রির মুখে নিরহঙ্কার ও কৃতজ্ঞতা দৃষ্ট হইল। বিদায় হইবার সময়ে আমরা পরস্পর হস্ত ধারণ করিলাম, পরে তাহার বাপ্তাইজিত হওনের পূর্ব্বে পুনর্ব্বার তাহার সহিত সাক্ষাৎ করিবার নিমিত্তে আমি আর এক দিবস নিরূপণ করিলাম।

 কাফ্রী বিদায় লইয়া কহিল “মাহাশয়, পরমেশ্বর আপনার প্রতি আশীর্ব্বাদ করুন।”

 তাহাতে আমি প্রত্যুত্তর করিলাম, হে খ্রীষ্টীয় ভাই, তোমাকেও সেই প্রকার এক্ষণে ও সদাক্ষণে আশীর্ব্বাদ করুন! আমেন।


তৃতীয় ভাগ।

 কাফ্রি দাসের সহিত এরূপ আনন্দজনক কথা হইলে পর আমার মনে যে চেতনা জন্মিল তাহা ব্যক্ত করা ভার।

 বাটীতে ফিরিয়া আইলে পর এই বিষয় ভাবিতে২ আমি জ্ঞান করিলাম তাহার বিশ্বাস ও ঈশ্বরের প্রতি মনঃপরিবর্ত্তনের প্রমাণ অতি স্পষ্ট ও সুন্দর রূপে প্রকাশ পাইয়াছে।

 ইহাতে স্বচ্ছন্দে দেখা গেল, মনুষ্যেরা অনুগ্রহ পাইয়া বিশ্বাসদ্বারা পরিত্রাণ প্রাপ্ত হয়়; তাহা যে তাহাদের নিজ গুণে এমত নহে, কিন্তু সে ঈশ্বরের দান হয়। এবং কাহারো যেন দর্প না হয়, এই নিমিত্তে তাহা কোন কর্ম্মের ফলেও হয় না। দেখ, যে ব্যক্তি পূর্ব্বে অজ্ঞানতারূপ ঘোর অন্ধকারে আবৃত হইয়া একগুঁইয়া ও অবশ বিপথগামী হইয়াছিল, সেই ব্যক্তি পরামনন পূর্ব্বক এইক্ষণে জ্ঞানি ও নম্র ও বিশ্বাসি খ্রীষ্টীয়ান হইয়াছে। অনুগ্রহরূপ জীবনের কর্ত্তা