পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/৩০৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিত্রা সন্ন্যাসিবেশে ফিরি দেশে দেশে হইয়া সাধুর শিষ্য, কত হেরিলাম মনোহর ধাম, কত মনোরম দৃশ্য । ভূধরে সাগরে বিজনে নগরে যখন যেখানে ভ্ৰমি, তবু নিশিদিনে ভুলিতে পারিনে সেই বিঘা দুই জমি। হাটে মাঠে বাটে এই মত কাটে বছর পনেরো ষোলো, একদিন শেষে ফিরিবারে দেশে বড়ই বাসনা হোলো । নমোনমো নমঃ, সুন্দরী মম জননী বঙ্গভূমি ! গঙ্গার তীর স্নিগ্ধ সমীর জীবন জুড়ালে তুমি । অবারিত মাঠ, গগন-ললাট চুমে তব পদ-ধূলি, ছায়া-সুনিবিড় শান্তির নীড় ছোট ছোট গ্রামগুলি । পল্লবঘন আম্রকানন, রাখালের খেলাগেহ ; স্তব্ধ অতল দীঘি-কালোজল, নিশীথ-শীতল স্নেহ । বুকভরা মধু বঙ্গের বধু জল ল’য়ে যায় ঘরে, মা বলিতে প্রাণ করে আনচান, চোখে আসে জল ভরে । দুই দিন পরে দ্বিতীয় প্রহরে প্রবেশিমু নিজগ্রামে। কুমোরের বাড়ি দক্ষিণে ছাড়ি, রথ-তলা করি’ বামে রাখি’ হাটখোলা, নন্দীর গোলা, মন্দির করি’ পাছে তৃষাতুর শেষে পহুছিনু এসে আমার বাড়ির কাছে। ধিক্ ধিক্ ওরে, শতধিক তোরে, নিলাজ কুলটা ভূমি, যখনি যাহার তখনি তাহার, এই কি জননী তুমি ? ૨જે ૦