পাতা:গোবিন্দ দাসের করচা.djvu/১৪০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গোবিন্দ দাসের করচ জামুপর্ণ এ শ্রুতির মৰ্ম্ম যদি জান। তবে কেন দুই তত্ত্ব এক বলি মান ৷ বেদান্তের স্বশ্ন কথা তুলি গোরারায়। তন্ন তন্ন করি সব অর্জুনে বুঝায় । জীব আত্মা পরমাত্মা এই ভাবে রয় । আত্মা মহাবৃক্ষ জীব তার পুত্র হয়। কি পাঠ পড়িলে তুমি পণ্ডিত ঠাকুর। আতাল পাতাল কথা সব কর দুর ॥ ঈশ্বরের ছায়া মায়। তাতে লিপ্ত নয়। তাহার ইচ্ছায় জীব হয় মায়াময় ॥ নাম বলে যেই মায়া ছাড়িবারে পারে । সেই * * * হয় এ সংসারে ॥ মায়ার যবনিক মধ্যে আছে এক জন । যবনিকা তুলে তারে কর দরশন। এত বলি কৃষ্ণহে বলিয়া ডাক দিল । সেস্থান অমনি যেন নি:শব্দ হইল । প্রভুর মুখেতে নাম শুনিয়াছি কত। আজি কিন্তু দেহ মোর হৈল পুলকিত ॥.* রাম রাম বলি প্রভু ডাকিতে লাগিল । সেস্থান তখন যেন বৈকুণ্ঠ হইল ॥ অনুকুল বায়ু তবে বহিতে লাগিল । দলে দলে গ্রামালোক আসি দেথা দিল । শত শত লোক চারিদিকে দাড়াইয়া । হরিনাম শুনিতেছে নিঃশব্দ হইয়া ॥ নাম শুনিবার যেন স্বর্গে দেবগণ । মাথার উপরি আসি করিছে শ্রবণ ॥ ছুটিল পদ্মের গন্ধ বিমোহিত করি। ! অজ্ঞান হইয়া নাম করে গৌর হরি । -

  • গোবিন্দ দিনরাত্র এই অদম্য ভাবেব পাগলের नcत्र थांकिएउ थांकिरठ अलाख श्ब्र श्रिब्रांश्रिणन, |
  • &S

প্রভুর মুখের পানে সবার নয়ন। ঝর ঝর করি অশ্র পড়ে অনুক্ষণ ॥ বড় বড় মহারাষ্ট্ৰী আসি দলে দলে । শুনিতে লাগিল নাম মিলিয়া সকলে ॥ । পশ্চাৎ ভাগেতে মুহি দেখি তাকাইয়া । শত শত কুলবধু আছে দাড়াইয়া ॥ ভক্তিভরে হরিনাম শুনিছে সকলে । নারীগণ অশ্রুজল মুছিচে আঁচলে ॥ " | অসংখ্য বৈষ্ণব শৈব সন্ন্যাসী জুটিয়া । হরিনাম শুনিতেছে নয়ন মুদিয়া ॥ উপদেশে এই দেশ মাতাইলা প্রভূ । এমন প্রভাব মুহি দেখি নাই কতু ॥ " কখন তামিল বুলি গোরারায় । কন্তু বা সংস্কৃত বলি শ্রোতারে মাতায় ॥ ৯ এইরূপে হরিনাম করিতে করিতে। অজ্ঞান হইয়া প্রভু লাগিল নাচিতে ॥ এলাইল জটাজুট খসিল কৌপীন। ধুলায় ধুসর অঙ্গ যেন অতি দীন ॥ নাচিতে নাচিতে প্ৰভু অজ্ঞান হইয়া । ভূমির উপরে তবে পড়ে আছাড়িয় ॥ পড়িয়া রহিল প্ৰভু জড়ের সমান। ইহা দেখি লোক সব হৈল আগুয়ান ॥ কেহ জল আনি দেয় প্রভুর বদনে । , কেহব। ধরিয়া তোলে অতি সাবধানে ॥ দুই দও পরে প্রভু উঠিল বসিয়া । হরিধ্বনি করে সবে আশ্চাৰ্য্য হইয়া অপরাহ্লে এক বিপ্র ভিক্ষণ আনি দিল"। বৃক্ষতলে প্ৰভু মোর ভোগ লাগাইল ॥ "

  • করচার একস্থলে আছে—“এই দেশে তীর্থ

তাহার ভাবের সর্বদা উদ্রেক হইত না, কোন কোন | পৰ্যটর দীর্ঘকাল। সকলের ভাষা বুৰে শটার लिन इऐ७ । দুলাল।"