পাতা:গোরা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।


নে, এ কথা আমাদের পক্ষে সুখের কথা নয়। বিনয়কে আমি যে কতখানি ভালােবাসি সে আর-কেউ না জানে তাে তুমি জান। কিন্তু মা, এ ভালােবাসার কথা নয়, এর মধ্যে শত্রুতা মিত্রতা কিছুমাত্র নেই। বিনয় এর ফলাফল সমস্ত জেনেশুনেই এ কাজে প্রবৃত্ত হয়েছে। আমরা তাকে পরিত্যাগ করি নি, সে’ই আমাদের পরিত্যাগ করেছে, সুতরাং এখন যে বিচ্ছেদ ঘটেছে সে জন্যে সে এমন কোনো আঘাত পাবে না যা তার প্রত্যাশার অতীত।”

 আনন্দময়ী কহিলেন, “গােরা, বিনয় জানে, এই বিয়েতে তােমার সঙ্গে তার কোনােরকম যােগ থাকবে না সে কথা ঠিক। কিন্তু এও সে নিশ্চয় জানে, শুভকর্মে আমি তাকে কোনােমতেই পরিত্যাগ করতে পারব না। বিনয়ের বউকে আমি আশীর্বাদ করে গ্রহণ করব না এ কথা বিনয় যদি মনে করত তা হলে আমি বলছি, সে প্রাণ গেলেও এ বিয়ে করতে পারত না। আমি কি বিনয়ের মন জানি নে!”

 বলিয়া আনন্দময়ী চোখের কোণ হইতে এক ফোঁটা অশ্রু মুছিয়া ফেলিলেন। বিনয়ের জন্য গােরার মনের মধ্যে যে গভীর বেদনা ছিল তাহা আলােড়িত হইয়া উঠিল। তবু সে বলিল, “মা, তুমি সমাজে আছ এবং সমাজের কাছে তুমি ঋণী, এ কথা তােমাকে মনে রাখতে হবে।”

 আনন্দময়ী কহিলেন, “গােরা, আমি তাে তােমাকে বার বার বলেছি, সমাজের সঙ্গে আমার যােগ অনেক দিন থেকেই কেটে গেছে। সে জন্যে সমাজ আমাকে ঘৃণা করে, আমিও তার থেকে দূরে থাকি।”

 গােরা কহিল, “মা, তােমার এই কথায় আমি সব চেয়ে আঘাত পাই।”

 আনন্দময়ী তাঁহার অশ্রুছলছল স্নিগ্ধদৃষ্টি-দ্বারা গােরার সর্বাঙ্গ যেন স্পর্শ করিয়া কহিলেন, “বাছা, ঈশ্বর জানেন, তােকে এ আঘাত থেকে বাঁচাবার সাধ্য আমার নেই।”

গােরা উঠিয়া দাঁড়াইয়া কহিল, “তা হলে আমাকে কী করতে হবে তােমাকে বলি। আমি বিনয়ের কাছে চললুম, তাকে আমি বলব তােমাকে

৫০৪