পাতা:জয়তু নেতাজী.djvu/২৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Ꮍ ©8 জয়তু নেতাজী ছিল—ষেন সুভষের আদর্শ ও তাহদের আদর্শে কোন পার্থক্য নাই, এমন কি, নেতাজীর সেই আজাদ-হিনী-ফৌজ ভারতের মুক্তিসংগ্রামের আদর্শ সেনা । পরে তাহ অস্বীকার করা হইয়াছে ; তাহাতে মনে হয়, সে ছিল একটা সাময়িক প্রয়োজনসিদ্ধি । ভারত স্বাধীন হওয়াব পব, আজাদ-হিনী-ফৌজের প্রতি যেরূপ ব্যবহার করা হইয়াছে তাহা ভাবিলে শুদ্ভিত হইতে হয় । সেই আজাদীফৌজেব বিরুদ্ধেই, ব্রিটিশ গবর্ণমেণ্টের বেতনভূক, ব্রিটি৭ভক্ত অর্থাৎ দেশদ্রোহী ষে সৈদ্য ও সেনানাসকেরা যুদ্ধ করিয়াছিল, স্বাধীন ভারত তাহাদিগকেই মাথায় কবিয়া লইয়াছে, এবং আজাদ-হিনফৌজকে সৰ্ব্বপ্রকারে অপমানিত কবিয়াছে। ঐ একটি কার্য্যের দ্বারাই তাহার নেতাজীকেও ভারতেব রাধু-জীবন হই৩ে বহিস্কৃত কবিষাছে । আব একটা ভুল-বিশ্বাস এখনও জনগণের মনে দৃঢ়মূল ইষ্টয়া আছে, তাহা এই যে, যেহেতু নেতাষ্ঠী সুভাষচন্দ্ৰ কথনও গান্ধীজির প্রতি শ্রদ্ধাঙ্গীন হন নাই, অতএব নেতাপী গান্ধী-মন্থে বিশ্বাসী ছিলেন— তাহার পন্থা স্বতন্ত্র হইলেও গান্ধীষ্ট তাeার শুরু ছিলেন, এবং ঐ কংগ্রেসেরই তিনি অমুগ'ত সেবক । এজষ্ঠ ঐ কংগ্রেসেব পতি ভক্তি এবং নের্তাজীব প্রতি শ্রদ্ধ, এই দুইয়ের মধ্যে কোন বিবোধ নাই । এই বিশ্বাস এমপই সহজ ও সুলভ যে, জনগণকে নিশ্চিন্ত করিবার ইহাই একটা বড় উপায় হইয়াছে । এইরূপ বিশ্বাস জন্মাইৰার পক্ষে অনেক সুবিধাও আছে । দেশের যাবতীয় প -পত্রিকায়এমন কি, নেতাজীর সম্পর্কে যত পুস্তক লিখিত হইয়াছে, তাহার অধিকাংশে ( বিশেষত: বাংলা পুস্তকগুলিতে ) সবচেয়ে বড় কথাটাই চাপা দেওয়া হইয়াছে—গান্ধী-কংগ্রেসেব সহিত সুভাষচঞ্জের সেই মূলগত ৰিবোধ, যে বিরোধের চূড়ান্ত প্রকাশ হইয়াছিল ত্রিপুরীতে।