পাতা:ঠাকুরমার ঝুলি.djvu/৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

ঠাকুরমা’র ঝুলি ※ চারিদিকে ফুল-বৃষ্টি, চারিদিকে চন্দন-বৃষ্টি ; ফুল ফোটে, খৈ ছোটে, রাজপুরীর হাজার ঢোলে ডুমডুমা কাটী পড়িল । তখন, শতে-শতে বাদী দাসী বাটুনা বাটে, হাজারে হাজারে ধাই দাসী কুটুনা কোটে ; দুয়ারে দুয়ারে মঙ্গল ঘাড়া পাঁচ পল্লব ফুলের তোড়া ; আলুপিন বিলিপনা, এয়োর ঝাঁক, পাট-পিড়ী আসন ঘিরে’, বেজে ওঠে শাখা। সে কি শোভা — রাজপুরীর চার-চত্বর দলদল ঝলমল ! আঙ্গিনায় আঙ্গিনায় হুলুধ্বনি, রাজভাণ্ডারে ছড়াছড়ি ; জনজনতার হুড়াহুড়ি,-এতদিনের ঘুমন্ত রাজপুরী দাপে কঁপে, আনন্দে তোলপাড় । তাহার পর, ফুটফুটে চাঁদের আলোয় আগুন-পুরুত সম্মুখে, গুয়া-পান, রাজ-রাজত্ব যৌতুক দিয়া, রাজা, পঞ্চরত্ন মুকুট পরাইয়া রাজপুত্রের সঙ্গে রাজকন্যার বিবাহ দিলেন। চারিদিকে জয়ধ্বনি উঠিল । ( 8 ) এক বছর, দু’বছর, বছরের পর কত বছর গেল,- দেশভ্রমণে গিয়াছেন, রাজপুত্র আজও ফিরেন না। কঁাদিয়া কাটিয়া, মাথা খুঁড়িয়া রাণী বিছানা নিয়াছেন ভাবিয়া ভাবিয়া, চোকের জল ফেলিতে ফেলিতে রাজা অন্ধ হইয়াছেন । রাজ্য অন্ধকার, রাজ্যে হাহাকার ,ܠ ※ 8 Ար Vyʻq