পাতা:প্রবাসী (ঊনত্রিংশ ভাগ, দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Նe প্রবাসী –কাৰ্ত্তিক, ১৩৩৬ [ ২৯শ ভাগ, ২য় খণ্ড জাসিয়াছেন। আজও তার সত্য র্তার সাধনা কাজ করিয়া চলিয়াছে কারণ এখনো বিরুদ্ধতা চলিয়াছে । बिक्रकठां८क डिनि उद्र रुद्रबन नाहे उबू गांश्ना সাধনাকে খোজে। সাধনা সদাই দৃঢ় ও গভীরভাবে কাজ করিবার জন্য সাধনাকে খোজে । यांद्विग्न मtछ सांब्रि भिtण. शलिग्नांठे नाजहब अरु मणैौ कलिग्न itछ । ८ष् ब्रष्च । शू{शूंश् छtनि, ७ां । खt्रह्म बश्णtनौ । बौ नाश बांस हि बक्नौ बांब्रि छांग्न उठई दांब्रि इच्छष शून नृ4 ढूँ भिtन छांब छाद छनहांग्रेो ॥ निङ्कब गिटक cशमन बी काल (टभत्रि जाषक ७ छांtबब्र थांब्रां प्रणिग्रांप्इ । नरूज बकन ७ बांन छात्र कब्रिग्ना cनषाzव जागबांप्क মিলাও । যুগযুগগুল্পী সাধনা চলিয়াছে, লোকলোকের সাধক छशिद्रोप्छन। छात ७ छखिङ्ग अिहे विश्षाब्र पग्रिा उणकोप्नब्र गरिङ जिब्रो भिजित्छ ठ्e । সংস্ত ভাবকী ধারা চলে সিংখ মে নদী সমান। ওই মিলাৰে জাপকু তঞ্জি সব বন্ধন মান ॥ জুগ যুগজয়ী সাধন চলে লোক লোক কী সংন্ত । ●ॉय छछि थांब्राँ शब्रि छीग्न भिtणां छनषशष्ठ ॥ রামমোহনের ব্যক্তিত্বে ও সাধনার মণ্ডলে রজবের মহাপুরুষ ও সাধনার মগুলের পূর্ণ পরিচয়ই পাই। প্রত্যেক যুগেরই একটি বিশেষ বিশেষ দান আছে। সেই যুগ তখনকার দিনের সর্বমানবের শ্রেষ্ঠ উপহার লইয়া এক দেশের দ্বারে দাড়ায়। যথার্থভাবে এই দান গ্রহণ করার সামর্থ্য দ্বারা সেই সেই দেশ তাঙ্গার জীবনের সাত্ত্বিকতা ও সাধনার পরিচয় দেয়। জড়প্রাণ তামসিক মৃতপ্রায় দেশ এই দান গ্রহণ করিতে পারে না। কখনো দণ্ডে কখনো অভিমানে ক্ষুদ্রজন উপাসিত কোন মনোহর সংকীর্ণতা বিশেষের নাম লইয়া যুগের এই মহাদান প্রত্যখ্যান করিয়া বিধাতার অভিশপ্ত দেশ যুগধৰ্ম্ম হইতে ভ্ৰষ্ট হয়। কাজেই যে সব মহাপুরুষ সমগ্র জাতির হইয়া এই মহাদান সত্যভাবে গ্রহণ করিয়া যুগধর্শ্বকে রক্ষা করেন তাহাদের কাজ যেমন মহৎ তেমনি কঠিন। এমন মহা পুরুষ পাইবার সৌভাগ্য যে জাতির নাই তাহার সেই মহাসম্পদ হইতে ভ্ৰষ্ট হইয়া দিন দিন তামসিকতাগ্রস্ত হইয় ধীরে ধীরে মৃত্যুমুখে অগ্রসর হইতে থাকে। দেশের সব ক্ষুত্রাশয় অন্ধলোকেরা এই মৃত্যুমুখে যাত্রাকেই মুসলমান যখন ভারতে আসিল সে তখন তার भक्रडूमिटङ अंखिजत्रा शरईव्र भtशा खांब्राउब्र छछ cकांन ८कांन भशंशांना चांनिब्रांछ्लि । डांशद्वनब्र कt*ांब्र जब्रण একনিষ্ঠ, তাহাঁদের দৃঢ় বাহুল্যবর্জিত সাধনা তখনকার রসভারাক্রান্ত আচারবিচারবাহুল্য ভারাক্রান্ত ভারতের পক্ষে অতি আবগুক ছিল। ভারত তখন তাহার জীবনের কেন্দ্র হারাইয়া, স্বষ্টিশক্তি হারাইয়া নিজেদের আচারবিচারের জsালই দিন দিন বাড়াইয়া তুলিতেছিল। অথবা মলিন রসের পঙ্কে ডুবিতেছিল। ভারত হয় তো এই মহৎ দান গ্রহণ করিতেই পারিত না যদি ভারতের হইয়া কবীর, নানক প্রভৃতি উত্তর-ভারতের সাধকেরা, বাংলার বাউলেরা ও অন্তান্ত প্রদেশের তৎকালিক গভীর সাধকের। তাহা গ্রহণ করিতে না পারিতেন । গঙ্গা যখন স্বর্গ হইতে অবতরণ করিলেন তখন সাধকবর মহাদেব স্বীয় জটাজালে সেই মন্দাকিনীধারা গ্রহণ করিয়াছিলেন। এই যুগে যখন পশ্চিম তাহার বিস্তৃত ও বহুধাবিচিত্র সভ্যতার জ্ঞানবিজ্ঞানের ঐশ্বৰ্য্য লইয়া উপস্থিত হইল তখন ভাগ্যে ভারতের লজ্জা রক্ষা করিবার জন্ত রামমোহন আপন সাধনার মধ্যে , সেই দান গ্রহণ করিলেন। তখনকার দিনে কেমন করিয়া নিজের দেশের বিশিষ্টতা না হারাইয়া এমন শ্রদ্ধার সহিত সেই দান গ্রহণ করিলেন যে তাহ চিন্তা করিলেও মন धंकांब नछ न झईय़ां झांझ ना । चांछिकांब्र दिचदिशांग८छ् শিক্ষিত কত বিদ্যাভিমানী সংস্কারমুক্ত হইয়া ষে মহাদান । धंकांब्र गश्ठि djङ्ॐ कब्रिहड यां cगहे अंश्रर्थब्र भश्मि বুঝিতে অক্ষম, রামমোহন সেই শিক্ষাবিরল দিনে কেমন कब्रिञ्च cगझे यशंशांन थंकांग्न चषक ७भन अछिबांछ শালীনতার সহিত যথার্থ বীর সাধকের মত গ্রহণ করিতে १iब्रिट्णन एठांश् छिंख1 ख्रिश्च ििवश्वiबि्रट इ्रवज्ठ इक्ष । এই সৰ অংশে ভারতের মধ্যযুগের এই সব সাধকদের সঙ্গে রামমোহনের মিল থাকিলেও অনেক দিকে প্রভেদও আছে। মধ্যযুগে সমস্ত ছিল প্রধানতঃ ধৰ্ম্মগত ভোকে DDD BB BBB BBB BB BBB BBB DBB DD DD DBB BB BBB BBB S করিয়া নিজেদের আসন্ন ৰিনটিকে সকলের চেতনার ও সাধকের তাহাজের সকল শক্তি, সকল সাধনা ঢালিয়া ; দৃষ্টর বহির্ভূত করিয়া রাখে। দিনে কোনাের উপর হতে পাৰে |