পাতা:প্রবাসী (সপ্তদশ ভাগ, প্রথম খণ্ড).pdf/২৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

প্ৰবাসী—ভাদ্র, ১৩২৪ [ ১৭শ ভাগ, ১ম খণ্ড তাকুগাও ঘুরে এক বিখ্যাত অভিনেতা রাঢ় দ্বিত গ্ৰহণ করেন । তুলি কয়েক নে তিনি হ’ব একে ফেলতে পারতেন না । চারিদিকে যে-সব লোক গোতেন তাদের চালচলন বিশেষত্ব প্ৰতি তিনি গভীর মনোযো সহিত পৰ্যবেক্ষণ করতেন । বিশেষ বিশেষ স্থানের বা। বিশেষ বিশেষ শ্রেণীর মধ্যেকার স্থাত ; তিনি বিতে ফুটিয়ে তুলতেন । তাঁর সঙ্গন্ধে শোনা যায় ক্ষুব্ধ হয়ে বাদতে লাগলেন চিত্ৰক তাতে কিছু “একদিন অনেক রাত পৰ্যায় বাষ্ঠী না মেরায় তার বিচলিত না হয়ে বা তাকে শান্ত করবার কোনো চেষ্টা নী পী চিন্তিত হয়ে উঠলেন । রাত যখন প্ৰায় বাটে তখন ক:ী’ কাগজ, পেন্দিল নিয়ে ছবি আঁকতে বসে’ গেম একটা শব্দ নে তিনি ফিরে দেখেন ঘরের মধ্যে এক প্ৰভাতে, কুনিনাদার অস্থিত “ভাকাতে ভয়ে-অষ্ট ভীষণাকার ডাকাত । ভয়ে আড়ষ্ট হয়ে তিনি নিৰ্ব্বাক হয়ে ষ্ট্ৰীলোকের ছবি বেগে সকলে তারিস করতে লাগলো ? রইলেন, মুখ দিয়ে আর কথা বার হন । তার অসহায় কুনিসানার ি ম্বন্ধে এক জাপানী সমালোচকের মত অবস্থা দেখে ডাকাত মুগ্ধ থেকে মুখোশ খুলে ফেলে, বয়ে কুনিসাবার অঙ্কিত ঠিগুলি সেই যুগের প্রতিভূ ভয় নেই ভয় নেই। তখন তিনি দেখেন ডাকাত আর কিন্তু সেগুলি সেই সূগের লোক হলেও বাস্তব লোকের মত কেউ নয় তারই স্বামী। স্বামীর এই হলো তিনি বিক্ষিত নয় ; আধৰ্শ লোক । এ থেকে বোঝা যায় চিৰচয়িতা ঐ ৫ম সংখ্যা জাপানের সুকুমার শিল্প 8৬১ ঘাট । কারণ প্ৰকৃত অষ্টি প্ৰকৃতির অনুকরণ করেন, না ; তার মনের মাঝে মতা ও সুন্দরের যে- আদৰ্শ বৰ্তমান সেই আদশ অনুযায়ী প্ৰকৃতির নিয়ম অনুসরণ করে’ তিনি চিত্র রচনা করেন মাক অামা ওক ( ১৭৩৩-১৭৯৫ } একজন বিখ্যাত চিনাকর । জাপানের জাতীয় শিলাইতিহাসে উল্লেখ অাছে—দীৰ্ঘকাল ধরে তা শে মাগোর চারিদিকে বিদ্বোমিত হয়েছিল । পুরানো শিল্পী-সপ্রদায়ের বাধাপরা নিয়ম তিনি ভেঙে দিয়ে শক্তি ও স্বাতন্থের পরিচয় দিয়ে. ছিলেন । জীবজন্তুর চাষেরা গুণে তার অসাধারণ বগতা ছিল। নিগদ অন্ধনেও তিনি যথেষ্ট মৌলিকতা পরিচর দ্যান । তবে মানুষের ধৰি অকায় তিনি তেমন কৃতিত্ব দেখতে পারেননি। । তুতের ছবি আঁকতে ও তার খুব হাত ছিল একবার একটা লোক পিঠে একটা তুতের ছবি অঁক বার জন্যে তঁর কাছে আসে তার হচ্ছে সেই ছবির ওপর উক্ষি পরে । অনেক সাধা সাধনার পর ওকে। সন্তে ব্লাদি হলেন নে ঐ লোক নিজের পিঠের ছবি কথানে দেখবে না। কিন্তু বিপর। শেষ হলে যে তার পি সে-ই যখন ভাৱে বিস্ময়ে চেয়ে উঠতে লাগলে তখন লোক ট ছবি দেখবার অদম্য কোতুহল আর সামলাতে পারলে না। চিত্ৰকরে কাছে যে প্ৰতিজ্ঞা করেছিল তা তুলে গিয়ে একদিন একখানা আমি আনিলে সে পিঠের ছবি দেখলে । সেই ছবি দেখে সে পাগলের মত হয়ে গেল। । কিছুতেই তার শান্তি নেই মনে হতে লাগিলো সেই ভয়ানক মুটি অনুক্ষণ তার অনুসরণ করছে । শেষকালে অনপ য় হয়ে নিদাশ কষ্টভোগ করে” সেই সমস্ত ছবিটা সে পুড়িয়ে গা থেকে তুলে ধরে । পরিশিষ্ট বিদেশী পৰ্যটক তোকিওর ‘ইন্িির অাল নিষ্ট আমে জিবে কানন, কাশা দেবী জাপানী চিত্ৰে উৎকৃষ্ট নিদৰ্শন দেখতে পান না । এর কারণ, হাই কম, অতি খুব উৎকৃষ্ট ছবিগুলি কাঠের বাক্সে ভরে অগ্নি-পরীক্ষিত আবহাও ছবির পক্ষে বা খারা বেশীদিন ছবি খোলা ঘরের মধো বদ্ধ করে’ রাখা হয়। । কাউকে দেখাতে হলে থাকলে খারাপ হয়ে যায় । জাপানী চিত্রের অমূলা নিদৰ্শন মাঝে মাঝে হার করে’ গোনো হয় তোকিও হুকুমার গুলি বেশীক্ষণ আলো বা সাতা সহ করতে পারে না শিল্প বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ যুক্ত মাসাকি বলেন তাই লোহ, বা অন্ত ধুতুনিৰ্ম্মিত শিল্পদ্রব্য ছাড়া আর সবই