পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬৬৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রাচীন সঙ্গীত—কৃষ্ণকমল গোস্বামী—জন্ম ১৮১০ খৃঃ । >ぐり>○ দে দেখি সে খতখান মোরে, যদি যেতেই হ’ল সে মধুপুরে, তবে ল’য়ে যাই তাই হস্তে করে। রাধিকা। খত নিয়ে কি ক’রবি চন্দ্রে ? চন্দ্রা। রাই ! খত নিয়ে এই করব,— —ব’লব আগে রীতিমত, তাতে যদি না হয় রত, দেখায়ে এই দাস-খত বাধূব আপন-জোরে ; লোকে যদি সুধায় মোরে, কেন বঁাধ রাজার করে, তখন আমি বলৰ গরব ক’রে, ব’ল্ব আমাদের আমাদের আমাদের রাজার— খতের খাতক নিলাম ধ’রে। —( তারে মোদের ভয় কি ? রাজা হোক না কেন,— —সে মথুরার রাজা হোক না কেন,— সেত আমাদের প্রাণবল্লভ বটে )– রাধিক । তবে চন্দ্ৰে ! এই খত নেও। (খত অৰ্পণ ) (চন্দ্রাদুতীর হস্ত ধরিয়া )– রাগিণী—মনোহরসাহি, তাল—লোভা । তুমি চন্দ্রা সুচতুরা, নিশ্চয় যাবে মথুরা, আনিতে মোর পরাণ-বল্লভে । আমার শপথ লাগে, বলি সখি তোমার আগে, মোর এই কথাটী রাখিবে ॥ বেঁধে না তার কোমল করে, ভৎসনা করে না তারে, মনে যেন নাহি পায় দুঃখ । আহা ! যখন তারে মন্দ ক’বে, চন্দ্রমুখ মলিন হবে, তাই ভেবে ফাটে মোর বুক । 臺 臺 導 賽 賽 棗 রাগিণী—মনোহরসাহি, তাল—লোভা । কৃষ্ণ । চন্দ্রী-সখি বল বল, বৃন্দাবনের সুমঙ্গল, কুশলে তো আছে বন্ধুগণ ? পিতা নন্দ মহাশয়, পরম করুণাময়, কিরূপে বা রেখেছেন জীবন। মাতা মোর যশোমতী, যেন স্নেহ মূৰ্ত্তিমতী, মন বেঁধে আছেন কি মতে ?