পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৯৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


را سbسbلا চিরঘাটে কৌতুক। জটিল কুটিল৷ বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । কৃষ্ণ-লীলা ( বৃন্দাবন-লীলা ) কৃষ্ণ-কালী । একদিন কমলিনী যমুনার তটে । কাত্যায়নী-ব্ৰত ছলে গেল চিরঘাটে ॥ সখীগণে মুন্দরী যে সংহতি করিয়া । চিরঘাটে মহাব্ৰত আচরিল গিয়া ॥ হেনকালে তথা গেল নিকুঞ্জবিহারী। রাধা রাধা বলিয়া সঘনে বাশী পূরি ॥ কৃষ্ণেরে পাইয়া গোপী লভিল জীবন। রবির উদয়ে যেন কমলের বন ॥ রাজহংস দেখি যেন চঞ্চল হংসিনী। সখী সহ তেমতি হইল বিনোদিনী ॥ মদনমোহন স্যামে মধ্যেতে থুইয়া। চারিদিকে গোপীগণ মণ্ডলী করিয়া ॥ পদ্মেতে কেশর যেন মধ্যেতে ভ্রমর । চারিদিকে শোভে যেন পল্লব মনোহর ॥ সেই মত শোভা হল কি কহিব তার। মধ্যস্থলে বিরাজেন সংসারের সার ॥ চারিদিকে সর্থী সব নাচিয়া বেড়ায় । হেনকালে জটিল কুটিলা তথা যায়। মায়ে বীয়ে দুইজনে কক্ষে কুম্ভ করি। চিরঘাটে গেল তবে আনিবারে বারি ॥ মত্ত হয়ে সখীগণ নাচিয়ে বেড়ায়। জটিল কুটিলা দেখি ভাবে অনুপায়। প্রকাশ করিয়া গ্ৰভু না কহেন বাণী । ঠারিয়া রাধারে জ্ঞাত করে চক্রপাণি ॥ চিহ্ন দেখি কমলিনী হন সাবধান । সম্বরিয়া তথায় রহিল ভগবান ॥ জটিল কুটিলা দেখি বিস্ময় হইল। ক্রোধভরে অমনি গৃহেতে ফিরি গেল ।