পাতা:বরেন্দ্র রন্ধন.djvu/১৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


છે(કાર বরেন্দ্র রন্ধন । তেমনি কচি ছাঁচী কুমড়া অথবা বুড়া শশার ঘণ্ট রাধিলে অতি উপাদেয় হয়। রুই মাছের সহিত কিন্তু কুমড়া অথবা শশার ঘণ্ট আদেী মজে না । • কচি ছাঁচ কুমড়া অথবা বুড়া দেখিয়া শশী লইয়া মিহি করিয়া কুট । ইলিশ মাছের মুড়া-কাটা মুণ হলুদ মথিয় কবিয়া রাখ। সম্ভবপর হইলে ঐ তেলেই জির, তেজপাত ও লঙ্কা ফোড়ন দিয়া কুমড়া অথবা শশা ছাড় । ইচ্ছা করিলে কুমড়া ও শশা একত্রে মিশাইয়াও ইলিশ মাছের সহিত ঘণ্ট রাধিতে পার। উত্তমরূপে আংসাও । মুণ, হলুদ দিয়া জল দাও। ফুটিলে কষান মাছ ছাড় । সিদ্ধ হইলে মাছ ভাঙ্গিয়া দিয়া সব বেশ করিয়া ধাটিয়া মিশাইয়া দাও। বাট ঝাল ( ধনিয়া বাট বাদ দিতে পার) মিশাও । জল শুকাইলে পিঠালী দিয়া আঁটিয়া নসনসে করিয়া নামাও । ইলিশ মাছের ‘ঘণ্টে আলাজের পরিমাণে মাছের ভাগ কম থাকিয়া শুধু মুড়া-কাটাতেই বেশ চলে, কিন্তু ভাঙ্গায় সরিষার তেল ও মাছের ভাগ একটু বেশী থাকিলে তবে তাহ খাইতে সুস্বাছ হয়। ১৮৪ । ইলিশ মাছের সহিত কচু উঁটির ঘণ্ট কচুশাকের মাইঝ পাতা ও কচি পাতার ডাটা লইয়া ছোট ছোট করিয়া কুট । ভাপ দিয়া জল গালিয়ু ফেল। ইলিশ মাছের মুড়াকাটা মুণ, হলুদ মাখিয়া কষাইয়া রাখ তৈলে জিরা, কালজিরা, তেজপাত ও লঙ্কা ফোড়ন দিয়া কচুডাটা ছাড়। আংসাও মুণ, হলুদ দিয়া অন্ন জল দাও। ফুটিলে কষান মাছ ছাড় । সিদ্ধ হইলে মাছ ভাঙ্গিয়া দিয়া উত্তমরূপে সব র্যাটিয়া মিশাইয়া দাও । বাট ঝাল মিশাও। পরে পিঠালী দিয়া আঁটিয়া নসনসে করিয়া নামাও। বরেন্দ্র বর্ষাকালে বিবাহদি ব্যাপারের ভোজে এই কচুঘণ্ট অন্নের সহিত পরিবেশন করা হইয়া থাকে । নালের সহিত ইলিশ মাছ মিশাইয়া এই প্রকারে বণ্ট রাধা চলিবে ।