পাতা:বিভূতি রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড).djvu/৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দেবযান ماt ত্মাশা হেসে বলে -আহা ! শম্ভুদা'র ওপর তোমার অত হিংসে কেন ? আমি কবে কি করচি তার সঙ্গে ? সে আসে যায়, পাশের বাড়ীর ছেলে তাড়িয়ে তো দিতে পারনে ? -- আচ্ছা, ভালো কথা । নিজের বাড়ী হোলে সে তো আর পাশের বাড়ার ছেলে থাকবে ন, তখন নতুন বাড়ীতে না ঢোকে যেন । 象 আশা একটু ভেবে বল্লে—হঁ্যাগো, এতে গায়ে কোনো কথা উঠবে না তো ? আমি মেয়েমানুষ, কি বুঝি বলে । তুমি রাগ কোরো না-—আমার ভয় করে । —-কোনো ভয় নেই । নেত্য মুখুয্যে যে কাজে হাত দেবে, তাতে কিছু গোলমাল হবে না । কিছু ভেবো না । • 彎 কথা শেষ করে নেত্য আশার পাশে বসে পড়ে তার হাতখানা নিজের হাতের মধ্যে লয়ে বল্লে -আমায় ভালোবাসে আশা ? আশা এদিক ওদিক চেয়ে মৃদুস্বরে বল্লে—নিশ্চয়ই । —সত্যি বলচো ?, - কেন, সন্দেহ আছে নাকি ? —তোমাদের যে মতিস্তির নেই কিনা, তাই বলচি । কাল সারাদুপুর শস্তু চকত্তির সঙ্গে গল্প করেচ । --আহা ! মা সেখানে সব সময়ে বসে। শম্ভুদা একটা কবিতার বই পড়ে শোনাচ্ছিল । —কি কবিতা ? -তা জানি নে । কিন্তু সেজন্যে তুমি ভাবে কেন ? আমার একটা উপায় যেখানে চয়, শেখানেই আমি থাকবো । মা বুড়ো হয়েচেন, আমার নিজের হাতে সম্বল নেই। ভাইবেীর এসে যদি জালা দেয়, দুকথা শোনায়, সে সংসারে থাকা আমার পোষাপে না । যদি অদৃষ্টষ্ট মন্দ না হবে, তবে এত শীগগির কপাল পুড়বে কেন আমার ? আশা সুখ নাচু করে আঁচলে চোখের জল মুছলে । যতীনের মন করুণা ও সঙ্গাঙ্গভূতিতে ভরে উঠলো ওর ওপরে - তাহলে জীবনের এসব সঙ্কটময় মুহূর্তেও আশা তার কথা মনে করে ! এখনও তাকে সে ভোলেনি ! পুপ ওর পাশে এসে মুছম্বরে বল্লে—চলে এসে যতীনদী, এখানে থেকে কিছু করতে পারবে না । গভীর রাত্রি P , “ - আশা, তাদের বাড়ীর ছোট্ট ঘরে ময়লা বালিশ মাথায় দিয়ে মেজেতে মাদুর পেতে শুয়ে আছে । গরমের দরুন শিয়রের জানালাটা খোলা । পুকুরপাডের অভিসার থেকে ফিরে সে দুটি মুড়ি খেয়ে শয্যা আশ্রয় করেচে। গরীবের ঘরের বিধবা, রাত্রে লুচি পরোটা জোটে না । যতীন বল্লে—আহা, কি খেলে দেথলে তো পুষ্প ? পেট পুরে খেতেও পায় না । --তা তো হোল, কিন্তু এখনও ঘুমোয়নি ভালো। গরমে ঘুম্বতে পারচে না । আমাদের অপেক্ষা করতে হবে । এখন সামনে যেও না । এই রকম আধ-তন্দ্র অবস্থায় তোমাকে ও বি. 夺。 bبه ع--س س