পাতা:বিভূতি রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড).djvu/২৫১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ՀՏԵ दिष्ट्राउ-ब्रळनावलौ জিজ্ঞাসা করলে—সে বায়স্কোপ কতক্ষণ দেখতে হবে ? প্রভাস বললে, এই সাড়ে ন’টা পৰ্য্যন্ত । শরৎ ভেবে দেখলে অত রাত্রে গিয়ে রান্না চড়ালে বাবা খাবেন কখন ? তা ছাড়া বাবা আজ সারাদিন এখানে ওখানে বেড়িয়ে গ্রাস্ত হয়ে পড়েছেন—বড়ো বয়সে অত অনিয়ুম করলে যদি শরীর অসুস্হ হয়ে পড়ে বিদেশে—তখন ভুগতে হবে তাকেই । সে বললে, আজ থাক প্রভাসদা, আজ আর বায়স্কোপ দেখে দরকার নেই । বাবার খেতে দেরি হয়ে যাবে। গিরীন তবুও নাছোড়বান্দা । সে বললে, কিছু ক্ষতি হবে না—মোটরে যেতে আর কতটুকু লাগবে ? আজই দেখা যাক । শরৎকে অত সহজে ভোলানো যাবে তেমন প্রকৃতির মেয়ে নয় সে । নিজের বধিতে সে যা ঠিক করে, ভাল হোক, মন্দ হোক, তার সে সৎকটপ থেকে নড়ানো গিরীনের কম নয়— গিরীন শীঘ্রই তার পরিচয় পেলে । প্রভাসকে সে ইংরেজীতে কি একটা কথা বললে, প্রভাস ও অরণ দুজনে অনুচ্চস্বরে কি বলাবলি করল । প্রভাস বললে, কাকাবাব কি বলেন ? কেদার নিজের মত অনুসারে চলবার সাহস পান গড়শিবপুরে, এখানে মেয়ের মতের বিরুদ্ধে যেতে তাঁর সাহসে কুলোয় না। সুতরাং তিনি বললেন, ও যখন বলছে, তখন আজ না হয় ওটা থাকগে প্রভাস, কাল যা হয় হবে । অগত্যা প্রভাস ওদের নিয়ে মোটরে উঠল—কিস্ত বেশ বোঝা গেল ওদের দল তাতে বিরক্ত হয়েছে । 費申 পীচ পর দিন প্রভাসের দলের কেউই বাগানবাড়িতে এল না। শরৎ সন্ধ্যার দিকে বাগানে আপন মনে খানিকটা বেড়িয়ে বাবাকে ডেকে বললে, বাবা খাবে নাকি ? কেদার বললেন, আজ এরা কেউ এল না কেন রে শরৎ ? —তা কি জানি বাবা । বোধ হয় কোনো কাজ পড়েছে— —তা তো বুঝলাম, কিস্ত; যা দেখবার দেখে নিতে পারলে হ’ত ভাল । আবার বাড়ি ফিরতে হবে সংক্লাস্তির আগেই— 嫁 * . কেদারের আর তেমন ভাল লাগছিল না বটে, কিন্ত তিনি বুঝেছিলেন মেয়ের এত. তাড়াতাড়ি দেশে ফিরবার ইচ্ছে নেই—তার এখন দেখবার বয়স, কখনো কিছ দেখে নি, আছে আজীবন গড়শিবপুরের জঙ্গলে পড়ে । দেখতে চায় দেখকে—তিনি বাধা দিতে চান না । শরৎ বললে, পে"পে খাবে বাবা ? বাগানের গাছ থেকে পেড়েছি, চমৎকার গাছ-পাকা । নিয়ে আসি দাঁড়াও— đựu ५ কেদার বললেন, আশপাশের বাগানবাড়িতে লোক থাকে কিনা জানিস কিছ মা ? —চলো না, তুমি পোপে খেয়ে নাও—দেখে আসি । মিনিট পনেরো পরে দুজনে পাশের একটা অন্ধকার বাগানবাড়ির ফটকের কাছে গিয়ে দাঁড়াতেই একজন খোট্ট দারোয়ান ফটকের পাশের ছোট একটা গমটি ঘর থেকে বার হয়ে বললে, কেয়া মাংতা বাবুজি ? কেদার হিন্দী বলতে পারেন না। উত্তর দিলেন, এ বাগানে কি আছে দ্বারোয়ানজি ? —বাবলোক হ্যায়–মাইজি ভি হ্যায়—যাইয়ে গা ?