পাতা:বিশ্বকোষ ত্রয়োদশ খণ্ড.djvu/৬০২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভোজবিদ্য; [ ७०२ ] ভোজবিদ্যা aলৈ ঘর্ষণ করিয়া, বিভূতিমিশ্রণে কপালে তিলক ধারণ করলে সৰ্ব্বজন বশীভূত হয় । পুষ্য নক্ষত্রে পুনর্ণবার মূল উ৫োলন করিয়া সপ্তবায় মগ্ন পাঠপুৰ্ব্বক হস্তে ধারণ করিলে কাৰ্য্যসিদ্ধি হয়। অপামার্গের মূল কপিলার দুগ্ধে পেষণ করিয়া | ৩লক করিলে অথবা উহার মূল ছায়াতে শুকাইয়ু, পরে সে মুলচুর্ণ তামূলসহযোগে সেবন করাচলে ত্রিজগৎ বশীভুত DDDSB BB S BB LLLSBBS g BBBBB BBS BBB BBS চুমুরের মূল পেষণ করিয়া তিলক ধারণে ফল পাওয়া যায় । SSBBBB SBB BBB BBB BBB BSttt gBBS KKD করবে। সেই গুটিকা মুখে নিক্ষেপ করিলে এবং কুঙ্কুম, ৩গর কাg, কুড়, হরিতাল ও মনঃশিল অনামিকার রক্তে }ম প্ৰত করিয়া তিলক করিলে সাধারণে বহু হয় । গোরোচন, পদ্মপ এ, প্রিয়ঙ্গু ও রক্তচন্দন একত্র করিয়া নে ফ্রাঞ্জন করিলে অথবা শ্বেতর্কুচ ছায়াতে শুষ্ক করিয়; কাপলার দুধে মিশ্রণাস্তুর তিলক দিলে কায্যোদ্ধার হয়। শ্বতদুর্ধ্ব। কাপলাধুদ্ধে মিশ্ৰিত করিয়া পরারে লেপন করিলে অথবা শ্বেত মাকদের । ছায়াশুষ্ক মূল কপিলার দুখে মাড়িয়া তিলক করলে কাৰ্য্য । নিফল হয় না । বিৰপএ ও মাতুলুঙ্গ ছাগধুখে পেষণ কারয়। এবং স্মৃতকুমারীর মূল ও সিদ্ধিবাজ একত্র পিষিয়া তিলক ধারণ কারণে বশকাৰ্য্য সফল হয়। হরিতাল, অশ্বগন্ধ, সম্মুর ও কদলীবৃক্ষের রস এক মৰ্দ্দন করিয়৷ তিলকদানে, অপামার্গের বীজ ছাগন্ধে পেষণ করিম। গাত্রলেপনে, হরিতাল ও তুলসীKS SKDS BBBBBB KDDSBBBBB BB BBBB S tBSKK BDBBB BBB BBB SBBS BBB BBB সকলোক বশীভূত হয় । এই সকল বশীকরণকায্যে ‘ওঁ নমঃ BBBBBBSBBBD BB BB BDS DB BBB BB BBBB ধ্রুপ ক{ল্পয় সিদ্ধি লাভ করিতে হবে । রবিবারে তুলসীর বীজ বেড়েলার রসে পেষণ করিয়৷ -1লtট তিলক দলে ত্ৰিজগতের লোক মোহিত করিতে “ারা যায় । হরিতাল ও অশ্বগন্ধা কদলীর রসে পেষণ করিয়া । পুরে গোরোচন। মাশ্রত করবে। উছার তিলক ধারণে । fত্র জগং মোহিত হয় । কাকড়াশুঙ্গা, রক্তচন্দন ও বচ | একত্র ধূপ প্রস্তুত করিয়া বস্ত্রে ও মুখে সেই ধূপ গ্রহণপূৰ্ব্বক । রাজ, প্রজা বা পশুপক্ষার প্রতি দৃষ্টিপাত কারলে সকলেই । মোহিত হইবে । সিঙ্গুর, কুঙ্কুম ও গোরোচন, আমলকীর বাস মনঃশিলা ও কপু র এবং শ্বেত আকদের মূল ও সিঙ্গুর কদলীর রসে পেষণপুৰ্ব্বক কণালে তিলকধারণেও ফল দশে । । তৃঙ্গরাজ, অপমাগ, লজ্জাৰতীলতা ও বেড়েলার মূল একত্ৰ ! পেষণ করিয়া তিলক করিলে ত্ৰিভূবন মোহিত হয়। শ্বেত | গুঞ্জারস দ্বারা বামণহাটীর মুল উত্তমরূপে মৰ্দ্দন করিয়৷ সৰ্ব্বাঙ্গে লেপন করিলে এবং শ্বেত আকদের মুল ও শ্বেতচন্দন একত্র বাটিয়া কপালে তিলক দিলে জগৎ মোহিত হয় । বিধপত্র ছায়াতে শুষ্ক ও চূর্ণ করিয়া কপিলাতুন্ধের সহিত মিশ্রিত করিয়া বটিক প্রস্তুত করবে। এই বটিক। ঘাসয়। কপালে তিলক কারলে সমগ্র জগদবাসীকে মোহিত করিতে পারা যায়। বিজয়। ( সিদ্ধি ) পত্র ও শ্বেতসর্ষপ পেষণ করিয়৷ গাত্রে লেপন করিলে মোহনকাৰ্য্য সমাধা হয়। প্রথমে তুলসপিএ ছায়াতে শুষ্ক করিয়া লইবে । পরে তাহার সহিত বিজয়াবাজ ও অশ্বগন্ধ। মিশ্রিত করিয়া কপিলাইন্ধে পেষণ করিয়ী ১ প্রতি প্রমাণ বটিক প্রস্তুত করিবে । এই বটিক প্রা তঃকালে ভক্ষণ করিলে কলকে মোহিত করিতে পারা যায়। দাড়িম্বের মূল, ছাল, প এ, চাল ও বীজ এবং শ্বেতকুচ একত্র পেষণ করিয়৷ কপাল তিলক করলে অথবা তত লাউবাজের তৈল দ্বার প্রদীপ জালিয়, তাহার শিখ ধূমের কজ্জল দ্বার নেত্র প্পন করিলে সকল ব্যক্তিকে মোহিত করা যায় । ೪g೩ ! ভেকের বসা রক্তবর্ণ ঘৃতকুমারীর রসে পেষণ করিয়া সৰ্ব্ব শরীরে লেপন করিলে অগ্নি স্তস্তন হয়, অর্থাৎ সেই ল্য ৫ র শরীর অগ্নিতে দগ্ধ হয় না । শ্বেত আকনের মুল র ফ্রবণ দুতকুমারার রসে পেষণ করিয়া গাত্রে স্রষ্মণ করিলে অগ্নিতাপ বিদূরিত হয়। কদলীবৃক্ষের রস ও রক্তবস্ত্র স্বতকুমারীর রসে একএ মিশ্রিত কfরয়। শরীরে লেপন করিলে গাত্রে অগ্নিদগ্ধ হয় না। ভেকের বসা ও কপু র একত্র মিশ্রিত করিয়। শরীরে লেপন করিলে অগ্নির উত্তাপ লাগিতে পারে না। সুতকুমারীর মূল ও কদলীবৃক্ষের মূল একত্র মদন করিয়া শরীরে প্রলেপ দিলে অগ্নিতে দগ্ধ হই বার সম্ভাবন। নাহ। পিপ্পলী, মরিচ ও শুটি একত্র বারংবার চৰ্ব্বণ করিলে BBDDmaK BKK KBB BBB BSBB BBBS BD S BBB ও ঘুত পান করিয়৷ শুঠ চৰ্ব্বণ করিলে মুখ মধ্যে তগুলেীছ নিক্ষেপ করিলে ও মুখ দগ্ধ হয় না ও নমো অগ্নিরূপায় মম শরীরে স্তম্ভনং কুর কুর স্বাহা’ এই মন্ত্র একশত অষ্টবার জপ করিয়া সিদ্ধ হইলে অগ্নিস্তম্ভনকায্যে প্রবৃত্ত হইবে । চৰ্ম্মকারের কুও অর্থাৎ চৰ্ম্মকারগণ ষে স্থানে চৰ্ম্ম ভিজাইয়। রাখে, তাহার কর্দম, চটকা পক্ষার রক্তযুক্ত করিয়া যাহার সম্মুখে নিক্ষেপ করবে, তাহারা আসন স্তম্ভিত্ত হইবে অর্থাৎ সেই ব্যক্তি ধে স্থানে থাকিবে, সেই স্থান হষ্টতে অভূত্র যাইতে পরিবে নল । একটা মমুৰা-মস্তকের খুলিতে মৃত্তিক স্থাপনপূৰ্ব্বক