পাতা:বিশ্বকোষ দ্বাদশ খণ্ড.djvu/৩৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


w দর্শন [ ૭૧ ] দলন

  • १िझरङ्गाऽदिक्षं-लव भूर्लश्यंश्ाखङ्गः ।।' নির্ণযুশ্চেতি পঞ্চাঙ্গং শাস্ত্রেইধিকরণং স্কৃতং ॥” ( মীমাংস )

যেমন এক শ্রুতিতে আছে, বৃক্ষ সম্বন্ধীয় কুশগ্ৰfর যজ্ঞ করিবে এবং পর শ্রুতিতে মাছে উল্লম্বর বৃক্ষজাত কুশ দ্বারা উহা করিবে । এস্থানে কুশদ্বারা যজ্ঞ করার ব্যবস্থার নাম বিষয়। কিন্তু সকূল প্রকার বৃক্ষের কুশ দিয়া যজ্ঞ হইবে কি উদ্ভূস্বর বৃক্ষ সম্বন্ধী, কুশ দ্বারা যজ্ঞ হইবে, এই রূপ সন্দেহের নাম অবিষয়। সিদ্ধান্ত বিরুদ্ধ তর্কোপন্যাসের নাম পূৰ্ব্বপক্ষ, সিদ্ধাস্তামুকুল বিচারের নাম উত্তরপক্ষ, নির্ণয় শব্দে সঙ্গতি অর্থাৎ সিদ্ধান্তসিদ্ধ বিচার্য বাক্যে তাৎপৰ্য্যাবধারণ। দেবগণ শরীরী বা সচেতন নহে, যে দেবের যে মন্ত্র বেদে নির্দিষ্ট হইয়াছে, সেই দেব সেই মন্ত্রস্বরূপ, মন্ত্রাতিরিক্ত দেবতার সত্ত্বে কোন প্রমাণ নাই । বরং তদ্বিরোধী প্রমাণই বহুতর আছে । দেখ, যদি মন্ত্র ভিন্ন একজন শরীরী দেবতা থাকেন, সেই দেবতারই পূজা করা যায় এবং তিনিই আবাহনাদি দ্বারা করুণপূির্বক ঘট ও প্রতিমাদিতে অধিষ্ঠিত श्हेग्न। भूयानि अश्१ करत्नन, उश्। २३८ग र कि भूभाग्न প্রতিমাদি ঐরাবতের সহিত ইন্দ্রদেবের ভারবহনে অশক্ত श्झेश ठूf इश्य शाशेड नईमश् ना३ । श्राव कि थक t রেই বা অল্প পরিমিত ঘটে, তাদৃশ বৃহদাকার ঐরাবতের সহিত ইন্দ্রদেলের সমাবেশ সম্ভবে ? কিন্তু দেবতাকে মন্ত্রাত্মক | বলিলে এ প্রকার দোষ ঘটে না। বেদ অপৌরষেয় ও স্বত: প্রমাণ। এস্থলে নৈয়ায়িক প্রভৃতি পণ্ডিতগণ কহিয় থাকেন, বেদোক্ত বিষয়ের সত্যতা আছে বলিয়া যে বেদের নিতত্ত্ব স্বীকার কfরতে হইবে, এমন কি নিয়ম আছে, ঘট কুম্ভকার কর্তৃক কৃত, এই বাক্যার্থের যথার্থ আছে বলিয়া যেমন ঐ বাক্যের অভ্রান্ত পুরুষোক্তি আছে, সেইরূপ বেদ মভ্ৰান্ত পুরুষ কর্তৃক প্রণীত এইমাত্র, নতুবা বেদ যে কোন ব্যক্তি কর্তৃক নিৰ্ম্মিত এমন নহে। নৈয়ায়িক পণ্ডিতেরা এইরূপ অনেক স্বাক্ষানুসন্ধান করিয়া বেদের ঈশ্বর-নিৰ্ম্মিতত্ব প্রতিপাদন করিয়াছেন, কিন্তু এদিকে পরমেশ্বরের শরীরাদি কিছুই স্বীকার করেন না। ইহা অতি আশ্চর্য্যের বিষয় যদি পরমেশ্বরের শরীরাদি নাই, তবে তিনি বেদ রচনা করিলেন কি প্রকারে ? ইত্যাদি প্রকারে ন্যায়ের যুক্তি সকল খণ্ডিত হইয়াছে। [ মীমাংসা দেখ । ] বেদান্তদর্শন—ইহার স্বত্ররচয়িত বেদব্যাস। শঙ্করাচার্য্য এই স্বত্র অবলম্বন করিয়া এই দর্শন প্রণয়ন করেন, এইজন্য ইহার নাম শাঙ্করদর্শনও কহে । বেদব্যাসের সূত্রগুলি এৰূপ মই যে, কোনজমেই ইহার তাৎপৰ্য গ্রহণ করা ~ആു. शत्र न। बब्रः बाराब ८षक" भडि धात्र, cन गरेर) { অর্থ করিতে পারে। একারণ বেদান্তস্থত্রের নানা an অর্থাৎ ঐ সূত্রের রামানুজকৃত ব্যাখ্যানুসারে প্রস্থান, মধবাচার্য্য কৃত ব্যাখ্যানুসারে মাধ্য পুস্থান { শঙ্করাচার্য কত ব্যাখ্যায়ুসারে শাস্করপ্রস্থান । এতদ্ভিন্ন আরও অনেক প্রস্থান আছে, অধুনা তাহার প্রচলন নাই। শঙ্করাচার্য অসাধারণ প্রতিভাবলে ইহাতে অoৈn সংস্থাপন করিয়াছেন। উপনিষদ শাস্ত্রই ভারতীয় ব্রহ্মga পূর্ণভাণ্ডার। এই উপনিবন্ধু মীমাংসার জন্যই বোমু বেদান্ত বিষয় বলিবার পূর্বে উপনিষদের বিষয় বলা কnি ॐनिबन्नभूश्च भङ त्रिदि१ ठेवठ ७ अटैक्ठ । भऐक्श्धाः ব্ৰহ্ম ভিন্ন আর কিছুই নাই, দ্বৈত মতে এই ব্ৰহ্মও মাক আর জীব্র ও জগৎ আছে। কেবল আপাততঃ এই #} মতকে স্বতন্ত্র বলিয়া বোধ হয়, কিন্তু স্পষ্ট করিয়া বুধিলে? মত ভিন্ন বলিয়া বোধ থাকেন। শঙ্করাচার্য্য এই দর্শনে অদ্বৈতমতই বিশেষরূপে । পন করিয়াছেন । এই বেদস্তিদর্শন চারিপাদে বিভক্ত, } সকল পাদে ব্রহ্মের জগৎকর্তৃস্থাদি অক্ষ ট্রার্থ শ্রুতি দলে ব্ৰহ্ম পরত্বাদি, সাংখ্যমত নিরীকরণ, অদ্বৈত মত বিরুদ্ধ শ্রুটি । স্মৃতির সমস্বয়াদি, আকাশের নিত্যত্ব থগুন ও জন্তত্ব সংস্থা", জীবের সংসারগতি, ক্রমাদি জগতের অবস্থাভেদাদি ও রো প্রতিপাদ্য ব্রহ্ম, ইত্যাদি বিষয় প্রদর্শিত হইয়াছে। এই ৷ নের মতে একমাত্র ব্রহ্মই সত্য, আর সকল জগংই মি" ব্ৰহ্মজ্ঞান হইলেই মুক্তি হয় । ইত্যাদি বিষয় সকল গ্রী রূপে শ্রুতি, স্মৃতি ও যুক্তি প্রদর্শন দ্বারা প্রতিপদ্ধদন্ত । য়াছে। ইহাতে অধিকারী হওয়া প্রয়োজন। যাহারা অtি ন হইয়া সৰ্ব্বেীপান্ত নিগুৰ্ণ ব্রহ্মোপাসনা, ऐंझाठ {{ তাহাকে "জ্ঞানস্বৈনরকং” অর্থাৎ কেবল জুনিপার, আলোচনা করিলে নরক হয় ইত্যাদি শ্রুতির অস্থান (s नाब्रदौ श्cऊ श्य । বাস্তবিক প্রকৃত ফলের অণুমাত্রও লাভ হয় না। " জনের অধিকারী হওয়াও সহজ নহে। নিশা" অনুসারে বেদ ও বেদান্ত সকল অধ্যয়ন করিয়া বের " একপ্রকার হৃদয়ঙ্গম করিয়াছেন, ইহজন্মে বা "" কাম্য ও নিষিদ্ধ কৰ্ম্ম হইতে নিবৃত্ত झद्देश (काग * বন্দনাদি রূপ নিত্য নৈমিত্তিক ઋ, প্রায়শ্চিন্তু ও " मन! स्रर्थ{९ *ိဌိ i भानन उँभाजन यङ्गठि अश्5ान वृद्रि। उि' নিৰ্ম্মল করিয়াছেন এবং সাধন Fতরিসম্পন্ন इहे U. { i