পাতা:ব্যবসায়ে বাঙালী.djvu/১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ব্যবসায়ে বাঙালী २ বাংলার নেতা সুরেন্দ্রনাথ ছিলেন তাহার মন্ত্রদাতা । মনস্বী গোখেল Coifa of Tiffort—“What Bengal thinks to-day, the whole of India will think to-morrow”–“KİŞETİ STİH RÍKI চিন্তা করিতেছে, সমগ্র ভারত একদিন তাহ। চিস্তা করিবে ।’ এই বাংলার কোলেই জন্ম ভগবান রামকৃষ্ণ পরমহংসের—এই বাংলারই মুখ উজ্জল করিয়াছেন স্বামী বিবেকানন্দ, দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন, শ্রীঅরবিন্দ । বিশ্ববরেণ্য কবি রবীন্দ্রনাথ, বিজ্ঞানাচাৰ্য্য জগদীশচন্দ্র, রাসায়নিক প্রফুল্ল চন্দ্র, অধ্যাপক মেঘনাদ সাহা—এই বাংলাদেশেরই সন্তান । ধে দেশ এতসব প্রতি ভার জন্ম দিয়াছে, প্রশ্ন জাগে, সেদেশে আজ এত হাহাকার কেন ? বাংলার বহু বহু কুৰ্তী সস্তানকে দেখিতে পাই, উদরাল্প-সংস্থানের জন্য চারিদিকে ছুটাছুটি করিয়া বেড়াইতেছেন । যুবক-সম্প্রদায়ের মুখে তো তাকানোই যায় না ! এই যে অবস্থা, ইহার কি কোন প্রতিকার নাই ? এই যে পরাজয়ের গ্লানি আজ বাঙালীকে আচ্ছন্ন করিয়াছে, ইহার জন্য দায়ী কে ? ইহার কি কোন সমাধান নাই ? এই প্রশ্নটারই জবাব দিতে চেষ্ট কবিব । বাংলার প্রলি-সম্প্রদণর এই প্রসঙ্গে প্রথমেই মনে পড়ে বাংলার ধনি-সম্প্রদায়ের কথা । তাহারা যদি এ ব্যাপারে অগ্রণী হইতেন, দেশের এ দুর্দশ আজ হয়তে চরম-সীমায় পৌছিত না । নিশ্চিন্ত আরাম-বিলাস পরিত্যাগ করিয়া র্তাহারা যদি ব্যবসা-ক্ষেত্রে নামিয়া আসিতেন, তাহাতে যে কেবল বেকার-সমস্তারই সমাধান হইত, তা নয, তাহীদের নিজেদেরও অর্থাগম হইত প্রচুর। কিন্তু এ জাতীয় ঝুকি লইতে র্তাহারা প্রস্তুত নহেন— কি জানি, যদি টাকাটা মারা যায় ! তার চেয়ে নিরাপদে কোম্পানীর কাগজের স্বদ গুণিয়া যাওয়া ঢ়ের ভাল। এই তো তাহাদের মনোবৃত্তি !