পাতা:মহাত্মা কালীপ্রসন্ন সিংহ.djvu/১৭০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সপ্তম:পরিচ্ছেদ । ఊసి SJSJSJSJSAAAAAA AAAA AAAA AAAA AMAMAAA AAAAA جیمی কিন্তু উহা সম্পূর্ণ হইবার পূর্বেই ১৮৭০ খৃস্টাব্দের ২৪শে জুলাই দিবসে, ৯ই শ্রাবণ, ১২৭৭ বঙ্গাব্দে, বেল তিন ঘটিকার সময় দুরারোগ্য ব্যাধিতে আ ক্রাস্ত হইয়া প্রাণত্যাগ করেন । কালীপ্রসন্ন অপুত্রক ছিলেন। তাহার মৃত্যুর পর তাহার সহধৰ্ম্মিণী ভবলাইচন্দ্র সিংহের অন্যতম পুত্র ত্রযুক্ত বিজয়চন্দ্র সিংহ মহাশয়কে দত্তক-রূপে গ্রহণ করেন। বিজয় বাবুই এক্ষণে কালীপ্রসম্নের চিরপ্রিয় “Hindoo Patriot” পত্রিক পরিচালন করিতেছেন, এবং বিবিধ সদনুষ্ঠানে রত থাকিয় কালীপ্রসন্নের স্মৃতি উজ্জ্বল রাখিয়াছেন। বঙ্গসাহিত্যের ইতিহাসে কালীপ্রসন্নের নাম উজ্জ্বল অক্ষরে বঙ্গসাহিত্যের ইতিহাসে লিখিত হইলে । আচার্য্য কৃষ্ণকমল কালীপ্রসরের স্থান। পুরাতন প্রসঙ্গে যথার্থই বলিয়াছেন ঃ “পুরাতন সাহিত্যের আলোচনা করিতে বসিলে আমরা দেখিতে পাই যে, vকালীপ্রসন্ন সিংহের আসন খুব উচ্চে।” “বিশ্বকোষ”-সম্পাদক লিখিয়াছেন ঃ– “কালীপ্রসল্পের মহাভারত ও হতোম প্যাচ দ্বারা বাঙ্গাল ভাষার অনেক উপকার হইয়াছে। মহাভারতে যে অভাব বিজয়’ দিয়া মুদ্রাঙ্কনার্থে কাব্যপ্রকাশ যন্ত্ৰাধ্যক্ষ শ্ৰীযুত জগন্মোহন তর্কালঙ্কার ভট্টাচাৰ্য্য মহাশয়ের নিকট আমার বন্ধু দ্বারা পাঠাইলে শুনিলাম যে উক্তাভিধেয় শ্ৰীযুত কালীপ্রসন্ন সিংহ মহোদয়ের রচিত একখানি গ্রন্থের দুই ফরমা ভট্টচাৰ্য্য যন্ত্রে ছাপা হইয়াছে, এ কারণ তর্কালঙ্কার মহাশয়ের তথা জীযুক্ত সিংহ মহোদয়ের ও আমার মধ্যস্থ আত্মীয়ের অনুরোধে বঙ্গেশ বিজয়’ নামের পরিবর্তে এই গ্রন্থের নামে বঙ্গাধিপ পরাজয়’ দিলাম।”