পাতা:মুর্শিদাবাদের ইতিহাস-প্রথম খণ্ড.djvu/৫৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

않 않 মুর্শিদাবাদের ইতিহাস । তাহার তত্ত্বাবধান করিতেন ও মুর্শিদাবাদে আম পাঠাইতেন । ইহার জন্ত জমীদারদিগকে সাহায্য করিতে হইত। সরকারী আম গাছ জমীদারের কাটিতে পারিতেন না। জাফর খাঁ নিজে বিদ্বান ছিলেন, এবং বিদ্বান ও সাধুগণের সম্মান করিতেন। তিনি ক্ষিপ্ৰ হস্তে মুনীর রূপে লিখিতে পারিতেন। লাল কালীতে র্তাহার নাম স্বাক্ষর করার রীতি ছিল। গণিত বিদ্যায় পারদর্শী ছিলেন বলিয়া তিনি নিজেই সমস্ত আয় বায় পরিদর্শন করিতেন। তিনি দানে হাতেম ও বিচারে নসেক্লয়ার সদৃশ ছিলেন। স্তায়পর ও বিপরের ত্রাত কুলী খায় রাজত্বকালে সামান্ত কৃষক পৰ্য্যন্ত অন্তায় কাৰ্য্য ও অত্যাচারের হস্ত হইতে নিস্কৃতি লাভে সক্ষম হইত। কুলী খা বাদসাহের বা পূৰ্ব্ব সুবেদারগণের প্রদত্ত সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করিতেন না । বরঞ্চ তাহার সময়ে তাহদের বৃদ্ধিই হইয়াছিল। কোন জমীদার বা আমীন প্রজাদিগের প্রতি অত্যাচার করিয়া অব্যাহিত পাইতেন না। জমীদারদিগের উকীলের চেহেল-সেতুনের পথে ঘুরিয়া বেড়াইতেন। জমীদারদিগের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগকারীকে দেখিতে পাইলে, ষেরূপে হউক, তাহারা তাহাকে সন্তুষ্ট করিতেন, কারণ, কুলী খার কর্ণে অভিযোগ পহুছিলে অত্যাচারীকে যার পর নাই শাস্তি ভোগ করিতে হইত। যদি কোন বিচারক পক্ষপাতবশতঃ অথবা কোন সন্ত্রান্তবংশীয়ের মুখের দিকে চাহিয়া সামান্ত লোকের অভিযোগ শ্রবণে অবহেলা করিতেন, কুলী খাঁ জানিতে পারিলে নিজেই তাহার বিচার করিতেন ও উক্ত বিচারকের হাত কাটিয়া দিতেন। র্তাহার বিচারে কাহারও প্রতি অনুগ্রহ বা স্নেহ প্রদর্শিত হইত না। ধনী ও দারিদ্র ৰ্তাহার চক্ষে সমভাবে প্রতীত হইত। র্তাহার রাজত্বের প্রারম্ভে হুগলীর কোতোয়াল এমামুদ্দীন এক মোগলের কন্যাকে গৃহ